আর্কাইভ

ঘণ কুয়াশায় আরেকটি লঞ্চের ধাক্কায় বরিশালগামী যাত্রীবাহি লঞ্চের ১০জন যাত্রী আহত

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ মেঘনা নদীর মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া এলাকায় সোমবার গভীর রাতে চাঁদপুরগামী যাত্রীবাহী লঞ্চের ধাক্কায় দুমড়ে মুচড়ে গেছে বরিশালের হিজলাগামী যাত্রীবাহী লঞ্চ যুবরাজ-১’র পিছনের অংশ। এ সময় আহত হয়েছেন যুবরাজ লঞ্চের কমপক্ষে ১০ জন যাত্রী। এদের মধ্যে হিজলা উপজেলার শ্রীপুর গ্রামের বাসিন্দা রফিকুল ইসলামের পুত্র অপু ইসলামের (২৮) অবস্থা আশংকাজনক। তাকে চাঁদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকার সদরঘাট ত্যাগ করে ঢাকা-হিজলা-ভাষানচর রুটের যাত্রীবাহী লঞ্চ যুবরাজ-১। লঞ্চের যাত্রী হিজলার হরিনাথপুর গ্রামের নুর মোহাম্মদ হাওলাদার মোবাইল ফোনে এ প্রতিনিধিকে জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঘণ কুয়াশার কারনে মেঘনা নদীর গজারিয়া এলাকা লঞ্চটি থামিয়ে নোঙ্গর করে রাখা হয়। রাত দেড়টার দিকে ঢাকা থেকে চাঁদপুরগামী এমভি রথ নামের অপর একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ঘণ কুয়াশার কারনে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে থামানো লঞ্চটিকে পিছনের দিক থেকে ধাক্কা দেয়। এতে যুবরাজ লঞ্চের কমপক্ষে ১০ জন যাত্রী আহত হয়। দুমড়ে মুচড়ে যায় লঞ্চের পিছনের অংশ। ধাক্কার দেয়ার পর এমভি রথ দ্রুত গতিতে ওই এলাকা ত্যাগ করে। সূত্রে আরো জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার সকালে কুয়াশা কেটে যাওয়ার পর যুবরাজ লঞ্চটি চাঁদপুর ঘাটে নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে গুরুতর আহত অপু ইসলামকে আশংকাজনক অবস্থায় চাঁদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে যাত্রীবাহি যুবরাজ লঞ্চটি চাঁদপুর থেকে হিজলার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »