আর্কাইভ

বরিশালে গভীর রাতে ছাত্রী নিবাসে ছাত্র নেতাদের অনুপ্রবেশ – ক্যাম্পাসে উত্তেজনা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজের (শেবাচিম) ছাত্রী নিবাসে রবিবার গভীর রাতে দু’ছাত্র নেতা অনুপ্রবেশ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার রাত ১২টার দিকে কলেজ ছাত্র কল্যান পরিষদের ভিপি আবু তালিব আব্দুল্লাহ মারুফ ও প্রোভিপি আবুল বাকি এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে ছাত্রীরা অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সকালে ছাত্রী নিবাসে বসবাসকারী ছাত্রীরা ক্যাম্পাসে মানববনন্ধনের চেষ্টা করলে কলেজ প্রশাসন তাদের বাঁধা দেয়। পরে ছাত্রীরা ১০ দফা দাবিতে অধ্যক্ষের কাছে স্মারকলিপি পেশ করেন। এ নিয়ে পুরো ক্যাম্পাসে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

ছাত্রী নিবাসের বাসিন্দা কলেজ শাখা ছাত্র ফ্রন্টের যুগ্ম আহ্বায়ক ও কলেজ অধ্যক্ষের কন্যা নাবিলা আলম বলেন, সম্পূর্ন অবৈধভাবে কল্যান পরিষদের ভিপি মারুফ ও প্রোভিপি বাকি রাতের বেলা হোস্টেলে প্রবেশ করে। তারা নতুন ভবনের ২০২৩নং কক্ষ এবং পুরাতন ভবনের ৩০৯, ২১০ ও ২১৪ নং কক্ষে যায় এবং সেখানে বসবাসকারী ছাত্রীদের হোস্টেল ছেড়ে দিতে বলে। তবে ছাত্র কল্যান পরিষদের ভিপি-প্রোভিপি দু’জনই এ অভিযোগ অস্বীকার করেন। প্রো-ভিপি আব্দুল বাকি বলেন, রবিবার রাতে ছাত্রী হোস্টেলের ধারে কাছেই আমি যাইনি। ভিপি আবু তালিব আব্দুল্লাহ মারুফ জানান, কলেজ প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া সম্পূর্ন অবৈধভাবে ২০২৩নং কক্ষে বসবাস করছেন কলেজ শাখা ছাত্র শিবিরের সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদের স্ত্রী ৪০ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ইসরাত জাহান ইফা। একইভাবে ৩০৯, ২১১ ও ২১৪নং কক্ষে বসবাস করছে ৪০তম ব্যাচের শিবির কর্মীরা। এ ব্যাপারে হল সেক্রেটারীর সাথে কথা বলার জন্য হোস্টেলের অতিথি কক্ষে গিয়েছিলেন বলে জানান ভিপি মারুফ। কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ডাঃ শহিদুল আলম বলেন, ছাত্রীরা বিষয়টি তাকে অবহিত করেছে। এ ব্যাপারে কলেজ একাডেমী তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »