জাতীয়

অবশেষে সেই জুনায়েদ জেলহাজতে

ঢাকা : বান্ধবীকে নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে দুই বন্ধুর মধ্যে মারধরের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জুনায়েদ নামে সেই তরুণকে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

ফিল্মি স্টাইলের নির্যাতনকারী জুনায়েদ রোববার সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক কেএম শামসুল আলম তা নাকচ করে আসামিকে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ১৩ মার্চ ধানমণ্ডি লেকের পাড়ে একটি মারধরের ঘটনা ঘটে যা ভিডিও করা হয় এবং তা ফেসবুকে আপলোড করা হয়।

১০ মিনিটের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, এক কিশোরীকে কেন্দ্র করে নুরুল্লাহ নামের এক যুবককে মারধর করছে জুনায়েদ।

নুররুল্লাহ তার বান্ধবীকে নিয়ে কটূক্তি করেছে- এই অভিযোগে জুনায়েদ তাকে মারধর করে। কিন্তু বারবার অভিযোগ অস্বীকার করেছে নুরুল্লাহ। তারপরও মারছিল জুনায়েদ। অব্যাহত চড়-থাপ্পড় ও লাথিতে নুরুল্লাহ বসে পড়ে। এরপর ফিল্মি কায়দায় তাকে তুলে দাঁড় করিয়ে আবারও মারতে থাকে জুনায়েদ।

‘তুই গুটিবাজ’- এই কথা বলতে বলতে জুনায়েদ লাথি মারতে থাকে নুরুল্লাহকে। সে আরো বলে, ‘তুই ওকে খারাপ বলছিস।’ উত্তরে নুরুল্লাহ বলে, ‘আমি গুটিবাজি করলে এখানে একা আসতাম না।’

ফুটেজে দেখা যায়, নুরুল্লাহ মারের হাত থেকে বাঁচতে কাকুতি মিনতি করছে। কিন্তু কিছুতেই থামছে না জুনায়েদ। বরং দম্ভভরে জুনায়েদ বলে, ‘আমি জুনায়েদ, তুই আমাকে চিনিস না।’

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button