আর্কাইভ

গৌরনদীতে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে এক ছাত্রী

বখাটেদের হামলা ও হুমকির মুখে

এনায়েত হোসেন মুন্না, স্টাফ রিপোর্টার ॥  বখাটে ও তার সহযোগীদের অব্যহত উত্যক্ত, হামলা ও হুমকির মুখে গত দু’দিন থেকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পিঙ্গলাকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্রী রাবেয়া আক্তার। বখাটেদের অপহরনের হুমকির মুখে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে ছাত্রীর পরিবারটি। আজ বুধবার সকালে স্কুল ছাত্রীর মা লাইলী বেগম মেয়ের পড়াশোনা বন্ধের কারন ও নিরাপত্তাহীনতার বিষয়ের প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার ওসির কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, পিঙ্গলাকাঠী গ্রামের মৃত মাজেদ সিকদারের কন্যা ও দশম শ্রেনীর ছাত্রী রাবেয়া আক্তারকে গত তিন মাস যাবত স্কুলে আসা যাওয়ার পথে যৌণ হয়রানী করে আসছে পাশ্ববর্তী দিয়াশুর গ্রামের খলিল মল্লিকের বখাটে পুত্র রিয়াজ মল্লি¬ক ও তার সহযোগীরা। রবিবার সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে বখাটেরা রাবেয়ার পথরোধ করে টানা হেচরাসহ বিভিন্ন ধরনের যৌন হয়রানি করে। রাবেয়া বিষয়টি স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানালে বখাটে রিয়াজ আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

পরেরদিন সোমবার সন্ধ্যায় স্কুল ছাত্রী রাবেয়াকে তাদের বাড়ির পাশ্ববর্তী স্থানে বসে বখাটে রিয়াজ ও তার চারজন সহযোগীরা অপহরনের উদ্দেশ্যে পূর্ণরায় টানাহেচরাসহ শ্লীলতাহানি করে। এ সময় রাবেয়ার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে বখাটেরা পালিয়ে যায়। অভিযোগে আরো জানা গেছে, এ ঘটনার পর ওইদিন রাতেই স্কুল ছাত্রীর মা তার মেয়েকে নিয়ে থানার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হলে দিয়াশুর নামকস্থানে বসে বখাটেরা তাদের ওপর দ্বিতীয় দফায় হামলা চালায়। বখাটেদের অব্যাহত যৌণ হয়রানী ও অপহরনের হুমকির মুখে গত দু’দিন থেকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে স্কুল ছাত্রী রাবেয়া।

এ ঘটনায় আজ বুধবার সকালে স্কুল ছাত্রীর মা লাইলী বেগম উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও গৌরনদী থানার ওসির কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। ওসি আবুল কালাম জানান, বখাটে রিয়াজ ও তার সহযোগীদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চলছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্কুল ছাত্রীর পড়াশোনা অব্যাহত রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »