গৌরনদী সংবাদ

সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে হাসপাতাল ত্যাগে বাধ্য হলেন গুরুতর আহত মামুন

প্রতিপক্ষের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের অপহরনের হুমকির মুখে অবশেষে হাসপাতাল ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন হামলায় গুরুতর আহত যুবক মামুন বেপারী।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার রাতে জেলার গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে।

বর্তমানে শেবাচিম হাসপাতালে মামুন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরধরে গৌরনদী পৌর এলাকার কাছেমাবাদ মহল্লার হাই মার্কেট নামক এলাকায় শনিবার রাতে স্থানীয় প্রভাবশালী মহিউদ্দিন খন্দকার, আরিফ খন্দকার, ডাকাতি মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি মিজান বেপারী ও তাদের ১৫/২০ জন সহযোগীরা অর্তকিতভাবে হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে প্রতিপক্ষ মাষ্টার আনোয়ার হোসেন বেপারী, মামুন বেপারী, মাসুম বেপারী, নাজমা বেগম, ছেনোয়ারা বেগম ও রিফাত সিকদারকে।

হামলায় গুরুতর আহত আনোয়ার হোসেনকে শেবাচিম ও অন্যান্যদের গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

হামলার ঘটনায় শাহজাহান বেপারী বাদি হয়ে ১২জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার বাদি অভিযোগ করেন, হামলাকারীদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা হাসপাতাল ত্যাগের জন্য তার পুত্র গুরুতর আহত মামুনকে একাধিকবার অপহরনের হুমকি প্রদর্শন করে।

সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হুমকির মুখে সোমবার রাতে গৌরনদী হাসপাতাল থেকে অতিগোপনে মুর্মুর্ষ অবস্থায় মামুনকে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

বিশ্বজিত সরকার বিপ্লব


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

Tags

আরো পোষ্ট...