আর্কাইভ

৩ মাস বেতন বন্ধ গৌরনদী পৌরসভার কর্মচারীদের

ভাতা বন্ধ থাকায় পরিবার পরিজন নিয়ে ওইসব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এখন মানবেতর জীবন যাপন করছেন। বর্তমান পৌর মেয়র নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত থাকায় এসব কর্মকর্তা কর্মচারীদের খোঁজ খবর নিচ্ছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। পৌর কর্তৃপক্ষের অযুহাত তহবিলে অর্থ না থাকায় বেতন দেয়া সম্ভব হচ্ছেনা।

প্রথম শ্রেনীর গৌরনদী পৌরসভার সচিব মোঃ ফারুক হোসেন জানান, গত অক্টোবর মাস থেকে পৌরসভার নিয়মিত ৪০ জন ও মাষ্টার রোলে কর্মরত ২২ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীর বেতন ভাতা বন্ধ রয়েছে। এসব কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতিমাসে বেতন বাবদ সাড়ে ৬ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়। এছাড়াও অন্যান্য খাতে প্রায় ১০লক্ষ টাকা প্রতিমাসে পৌরসভার খরচ রয়েছে। তিনি আরো জানান, ট্যাক্স বাবদ এখানো ৫০ লক্ষ টাকা আদায় না হওয়ায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা বন্ধ রয়েছে। পৌরসভার প্রধান হিসাব রক্ষক খোকন চন্দ্র সাহা বলেন, প্রতিবছর ট্যাক্স বাবদ ২১ লক্ষ টাকা আদায় হওয়ার কথা থাকলেও পৌর নাগরিকরা ট্যাক্স পরিশোধ করছেন না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক পৌর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা জানান, বর্তমান পৌর মেয়র ও বিএনপি নেতা হাওলাদার নুরুল ইসলাম আগামি ১৩ জানুয়ারির নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করায় তিনি এখন নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। দীর্ঘ তিনমাস ধরে বেতন ভাতা বন্ধ থাকায় পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করলেও পৌর মেয়র তাদের খোঁজ খবর রাখছেন না।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »