আর্কাইভ

আমি চোখের পানি ধরে রাখতে পারিনি

স্যাটেলাইট ডিশ এর মাধ্যমে,চ্যানেল আই এর নিউজ দেখলাম,বিএসএফ এর ঘটনা দেখলাম, নির্মম বলবো না…’নির্মম’ শব্দটাও লজ্জা পাবে, অবশ্য বিএসএফ সবসময় এমন করে, আমরা তাকিয়ে তাকিয়ে দেখি, আমাদের বর্তমান সরকার দেখেন, বিডিআর কে দূর্বল করা হল, নামটা পর্যন্ত বদলানো হোলো, বিডিআর কে গার্ড বানানো হোল, যেখানে ভারতীয়রা ফোর্স,তাদের টা ফোর্স আর আমদের টা গার্ড, নিরস্ত্র, নিরীহ ফেলানীকে হত্যা করার পর ঝুলিয়ে রাখল, ইচ্ছে করে ৩০ ঘন্টা পরে ফেরত দিল লাশ.।কেনো ? যেনো মেয়েটাকে যে রেপ করা হয়েছে সেটা বোঝা না যায় ? একটা স্বাধীন সার্বভৌম দেশ, মুক্তিযুদ্ধের একমাত্র ”পেটেন্ট ধারী” আওয়ামী লীগ ক্ষমতায়, অথচ হোম মিনিস্টার একটা বিবৃতি দিলেন না, ডেপুটি হোম মিনিস্টার আংগুল কচলাতে কচলাতে একটা বিবৃতি দিলেন,বল্লেন ”আমদের বন্ধুদের(বিএসএফ, ভারত) তরফ থেকে একটা ভূল হয়ে গেছে, আমরা বলব এমন ভূ্ল যেন তারা না করে”। লক্ষ্য করুন কোন প্রতিবাদ করলেন না, এটলিস্ট ফেলানি হত্যার বিচার চাইলেন না,যদিও বিএসএফ ২০১০ সালে যে ৬০ জন বাংলাদেশিকে অফিসিয়ালি হত্যা করেছে,আমি বাহবা দিব বিডিআর কমান্ডার কে যিনি অকুতোভয়ে এই ঘটনার বর্ণনা করলেন (সাংঘটনিক ভাবে দূর্বল হওয়া সত্বেও), আমি ধন্যবাদ দিব বাংলাদেশের মানবাধিকার সংস্থার চেয়ারম্যানকে যিনি কঠোর ভাষায় এর নিন্দা জানালেন এবং ভারতীয় মানবাধিকার সংস্থার চেয়ারম্যানকে জানিয়েছেন। আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা, ৭১ এ ঢাকা মেডিকেল কলেজের ফোর্থ ইয়ারের ছাত্র ছিলেন, বুকে রাইফেল নিয়ে সাংগু নদীর (যেটা এখন বাংলাদেশের অন্যতম গ্যাস ক্ষেত্র) হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়ে পাহারা দিয়েছেন,৭১ এর অসংখ্য বীরত্বপূর্ন অপারেশন এর স্বাক্ষী আমার বাবা, সে গল্প অন্যদিন হবে।

 

একটা স্বাধীন দেশের স্বপ্ন বুকে নিয়ে সেদিন সবাই যুদ্ধ করেছেন,যে দেশে সবার সামাজিক নিরাপত্তা থাকবে, একটা স্বাধীন পররাস্ট্রনীতি থাকবে, যেটা আমাদের ৭১ এর চেতনা,যেই চেতনার নাকি ”অতন্ত্রপ্রহরী” আমাদের এই বর্তমান সরকার, ফেলানিকে দেখলাম, ১২ বছরের নিস্পাপ মুখ, ভারতীয় পিষাচদের পাষবিকতায় নীল হয়ে যাওয়া দুটো ঠোঁট,ফেলানীর মুখচ্ছবিতে, আমি আমার নতুজানু বাংলাদেশকে দেখলাম।

পাঠকদের সবাইকে সম্ভব হলে আজকের চ্যানেল আই য়ের নিউজ দেখার

অনুরোধ রইল আর একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসাবে সব বাংলাদেশী ভাই বোন এর কাছে আমার অনুরোধ যে যেভাবে পারুন প্রতিবাদ করুন, আজ সময় এসেছে ভারত/পাকিস্তান এইসব পক্ষ বিপক্ষ না করে বাংলাদেশী হই, যেই পাকিস্তানের বর্বতার বিরুদ্ধে আমাদের আগের প্রজন্ম যুদ্ধ করলেন আজ সেই মুক্তিযোদ্ধাদের পরবর্তী প্রজন্ম হয়ে কেন আমরা এত নত হয়ে থাকি যে আমাদের নিরঅপরাধ নাগরিককে অন্যদেশ (ভারত সহ অন্য যেকোনো দেশ) হ্ত্যা করলে আমরা কোন প্রতিবাদ করতে পারি না? যারা দিন রাত ৭১ নিয়ে চিৎকার করেন আমি আজ তাদের বক্তব্য শুনতে চাই ।

বার বার চোখের সামনে একটা ১২ বছরের নিস্পাপ মুখ ভেসে উঠছে, ব্যন্গ করছে আমার স্বাধীন বাংলাদেশকে, আমার বাংলাদেশ কে এতটা এতটা নুয়ে পড়তে দেখে আমি আমার চোখের পানি ধরে রাখতে পারছি না।

আরো লেখার ইচ্ছা ছিল, চোখের পানিতে সব ঝাপসা হয়ে যাচ্ছে………..

 

লিখেছেন : নারনিয়া : http://www.somewhereinblog.net/blog/golapimukta/29304265

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »