আর্কাইভ

অব্যবস্থাপনার মধ্যে দিয়ে ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন

অব্যবস্থাপনা, সরকার বিরোধীদের প্রিজাইডিং, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার পদে নিয়োগ দানের অভিযোগ। ফলাফল ঘোষণায় গড়িমসি সহ নানান অভিযোগ উঠেছে। তবে ২/১টি জায়গা ছাড়া আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবস্থা ছিল ভাল। পুলিশ ও র‌্যাবের কঠোর নজরদারীর কারণে বড় ধরণের কোন অঘটন ঘটেনি। যেখানেই হামলার চেষ্টা সেখানেই র‌্যাব ও পুলিশ। গতকাল বিকেলে বরিশালে ফেমার পর্যবেক্ষক বীরমুক্তিযোদ্ধা এনায়েত হোসেন চৌধুরী বলেন, ব্যবস্থাপনায় ব্যাপক ত্র“টি ছিল। এছাড়া মনিটরিং ব্যবস্থা ছিল।

সরেজমিন বাবুগঞ্জের কেদারপুর ইউনিয়নের ছানী কেদারপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দেখা গেলে বুথের সংখ্যা কম মোমবাতি জ্বালিয়ে নেয়া হচ্ছে ভোট এ ব্যাপারে ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বলেন, মাওঃ খাইরুল বলেন, বার বার যোগাযোগ সত্ত্বেও রিটানিং অফিসার। জেলা নির্বাচন অফিসারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদেরকে পায়নি। এদিকে কাল মেহেন্দিগঞ্জ মুলাদী ও হিজলা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। একাধিক কেন্দ্রে বুথের সংখ্যা নিয়ে সমস্যার অভিযোগ দেয়া হচ্ছে।

এদিকে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে হামলা ও অনিয়মের অভিযোগ নিয়ে পরাজিত প্রার্থীরা জেলা নির্বাচন অফিসের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে তাদেরকে তাড়িয়ে দিচ্ছে জেলা নির্বাচন অফিসার মনিরুল ইসলাম। এদিকে মনির নিজেকে আ’লীগের লোক দাবী করে বলেন, আমার বাড়ি বাগেরহাট আমরা সকলে আ’লীগ করি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনির ছোট বেলা থেকেই উগ্রপন্থী।

আরও পড়ুন

Back to top button