গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে শিকল দিয়ে বেঁধে ওয়ার্কশপ শ্রমিককে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন – গ্রেপ্তার ১

অপহরণের পর বরিশালের গৌরনদী উপজেলার টরকী বাস্ট্যান্ড এলাকায় একটি ওয়ার্কশপের মধ্যে অপহৃত শ্রমিক বাপ্পী মৃধাকে (১৮) শিকল দিয়ে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন করেছে দুই মাদক বিক্রেতা ও তার সহযোগীরা। খবর পেয়ে পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থলে পৌছে নির্যাতিত শ্রমিককে উদ্ধার ও ঘটনার সাথে জড়িত ওয়ার্কশপ মালিক মাদক বিক্রেতা সেলিম সেরনিয়াবাতকে (৩৪) গ্রেপ্তার করেছে। এ ঘটনায় ওই দিন বিকালে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, উপজেলার টরকী বাসস্ট্যান্ড এলাকার সাদ্দাম ওয়ার্কশপের শ্রমিক কমলাপুর গ্রামের হারুন মৃধার ছেলে বাপ্পী মৃধাকে (১৮) গত ১৫দিন আগে ইয়াবা ট্যাবলেট আনতে ৩০০ টাকা দেয় মাদক বিক্রেতা ও টরকী বাসষ্ট্যান্ডের ত্রাস জুয়ের চকিদার ওরফে মুরগী জুয়েল। ওয়ার্কশপ শ্রমিক বাপ্পী মৃধা ইয়াবা ট্যাবলেট না এনে নিজের প্রয়োজনে ওই টাকা ব্যয় করে গা-ঢাকা দেয়। শ্রমিক বাপ্পী বুধবার সন্ধ্যায় টরকী বাসস্ট্যান্ডে ফিরে রাতে নিজের কর্মস্থলে ঘুমায়। এ খবর পেয়ে মাদক বিক্রেতা মুরগী জুয়েল, ওয়ার্কশপ মালিক সেলিম সেরনিয়াবাত বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে সাদ্দাম ওয়ার্কশপে গিয়ে তল্লাশী করে বাপ্পীকে খুজে পায়। পরে তারা শ্রমিক বাপ্পী মৃধাকে অপহরণ করে সেলিমের ওয়ার্কশপে নিয়ে হাত-পা শিকল দিয়ে বেঁধে খুটির সাথে তালা দেয়। এরপর ওই দুই মাদক বিক্রেতাসহ আরো ৩/৪ জন সহযোগী মিলে রাতভর শ্রমিক বাপ্পী মৃধার ওপর মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত শারীরিক নির্যাতন চালায়। এতে বাপ্পী অসুস্থ হয়ে পড়লে হাতে শিকল পড়িয়ে ভোরে একটি চৌকির উপর একটি লেপ দিয়ে তাকে ঢেকে রাখে। এ খবর পেয়ে গৌরনদী মডেল থানার একদল পুলিশ বৃহস্পতিবার দুপুর ১টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌছে নির্যাতনকারী সেলিম সেরনিয়াবাতকে গ্রেপ্তার ও শিকল দিয়ে বাঁধা অবস্থায় অপহৃত শ্রমিক বাপ্পী মৃধাকে উদ্ধার করেন।

গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন মিলন জানান, এ ব্যাপারে উদ্ধারকৃত বাপ্পী মৃধা বাদি হয়ে ২ জনের নাম উল্লেখসহ ৬ জনকে আসামি করে গতকাল থানায় অপহরন ও নির্যাতনের মামলা দায়ের করেছেন। মামলার প্রধান আসামি সেলিম সেরনিয়াবাতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার আলামত শিকল, তালা, লেপ ও লোহার রড জব্দ করেছে পুলিশ।

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button