আর্কাইভ

ঠিকাদারের কান কেটে নিলো সন্ত্রাসীরা

উম্মে রুম্মান, বরিশাল ॥ বরিশাল নগরীতে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে সেলিম চৌধুরী নামের এক ঠিকাদারের কান কেটে নিয়ে গেছে । রোববার বেলা ১২টায় বরিশাল নগরীর বেলতলা খেয়াঘাট এলাকার কীর্তনখোল ডক ইয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে। ঠিকাদার সেলিম চৌধুরী নগরীর ৫ নং ওয়াডের্র  পলাশপুরের বাসিন্দা।

দাবিকৃত চাঁদার টাকা না পেয়ে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে সেলিমের পরিবার। একই সাথে সেলিমের পরিবার ও স্থানীয়দের অভিযোগ, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে কাউনিয়া থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হলেও ঘটনাস্থলে কোন পুলিশ যায়নি। এর ফলে সন্ত্রাসীরা ঠিকাদারের শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন কানটি নিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায়। জখম সেলিম বর্তমানে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নাক, কান ও গলা বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সেলিম চৌধুরীর স্ত্রী শেফালী বেগম জানান, ‘আমার স্বামী বেলতলা খেয়াঘাট এলাকার ডক ইয়ার্ডে শ্রমিক সরবরাহ করেন। স্থানীয় সন্ত্রাসী বাদল ও তার ছোট ভাই মিন্টু তার কাছে শ্রমিকদের মাথাপিছু টাকা দাবি করেছিলো। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রোববার বেলা ১২টার ছোট মিন্টু ও বাদলের নেতৃত্বে বেল্লাল, কামাল, বাবুল ও দেলোয়ার ডক ইয়ার্ডে যায়। সেখানে বসে তারা নগদ ৫০ হাজার টাকা দাবি করে। সেলিম টাকা দিবে অস্বীকৃতি জানালে ধারালো অস্ত্র নিয়ে তার উপর আকস্মিক হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। এ সময় তিনি আত্মরক্ষার চেষ্টা করলে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম কান শরীর থেকে বিচ্চিন্ন হয়ে রাস্তায় পড়ে থাকে। হাসপাতালের নাক-কান ও গলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সরোয়ার হোসেন বলেন, কানের বহিরাংশ আর জোড়া লাগানো যাবে না। এছাড়াও তার গালে একটি ক্ষত রয়েছে। মেট্রোপলিটন কাউনিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, আমি এই ঘটনা জানি না। এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

Back to top button