আর্কাইভ

বাকেরগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের হোন্ডা মহড়া

দানিসুর রহমান লিমন, বাকেরগঞ্জ ॥ বাকেরগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের হোন্ডা মহড়ায় উপজেলা জুড়ে সর্বত্র আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। গতকাল সকাল ১০ টায় কলেজ ছাত্রলীগের একাংশের সভাপতি মেহেদী হাসান শামীম গ্রুপের রেজাউল ও পাশা কলেজে প্রাইভেট পড়তে গেলে প্রতিপক্ষরা তাদের উপর হামলা চালিয়ে ৫ জনকে আহত করে। সকাল সাড়ে ১১টায় মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়ার নেতৃত্বে ৩০/৩৫ টি হোন্ডা নিয়ে পৌর এলাকায় হোন্ডা মহড়া দেয়। সাইফুল গ্রুপ এসময় উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে প্রতিপক্ষ আতিক গ্রুপের নেতা-কর্মীদের খোঁজাখুঁজি করে। সাইফুল গ্রুপ উপজেলা পরিষদ থেকে চলে যাবার পরপর ছাত্রলীগের অপর গ্রুপের নেতা-কর্মীরা লাঠিসোঠা নিয়ে উপজেলা পরিষদ চত্বরে মহড়া দেয়।

সকাল ১২টায় মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়ার নেতৃত্বে হোন্ডা মহড়া শেষে বিএনপির ডাকা হরতাল ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে বাসস্ট্যান্ড চত্বরে পথসভা করে। পথসভায় বক্তব্য রাখেন মেয়র লোকমান হোসেন ডাকুয়া, পৌর আ’লীগ আহবায়ক মশিউর রহমান, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা বশির সিকদার, সাবেক জিএস নিয়ামত আবদুল্লাহ পলাশ, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি ইমাম সিকদার, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুল ডাকুয়া, কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি শেখ মিরাজ প্রমুখ। বিরুদ্ধে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধীক ব্যাক্তি জানান, ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের মহড়া দেয়ার সময় তাদের সাথে ধারাল অস্ত্র ছিল।

অপরদিকে বুধবারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা বশির সিকদার বাদী হয়ে আতিক গ্রুপের ১১ জনকে আসামী করে এবং কলেজ ছাত্রলীগের একাংশের সভাপতি মেহেদী হাসান শামীম বাদী হয়ে সাইফুল  গ্র“পের ১২ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। হরতালকে নয় গতকাল থানা পুলিশকে সার্বক্ষনিক ছাত্রলীগের দু’গ্র“পের সংঘর্ষ ঠেকাতে ব্যাস্ত দেখা গেছে। উভয় গ্র“পের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। পৌর এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »