আর্কাইভ

শারদ উৎসবে মেতেছে বরিশালের ১৩৬৬ টি পূজা মন্ডপ

উম্মে রুমান, বরিশাল ॥ ষষ্ঠীপূজার মধ্য দিয়ে গতকাল শারদীয় দুর্গাপূজার ৫ দিনের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। সকালে দেবী দুর্গার বোধন আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্য দিয়ে পূজা শুরু হয়। এবার সর্বোচ্চ পূজা হচ্ছে বরিশালে আর সবচেয়ে কম পূজা হবে ভোলা জেলায়। আগামী ৬ অক্টোবর বিজয়া দশমীতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে ৫ দিনের এ উৎসব শেষ হবে। দূর্গা পূজা উপলক্ষে মণ্ডপগুলোতে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে । এ বছর বরিশাল বিভাগে ১৩ শত ৬৬ মন্ডপে দূর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে । তার মধ্যে বরিশাল জেলার ৫৩৪টি, ভোলা জেলার ৯৭টি, ঝালকাঠি জেলার ১৬৯টি, বরগুনা জেলার ১৪০টি ও পিরোজপুর জেলার ৪২৬ টি মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

বরিশাল জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি এ্যাডঃ শ্রী দিলীপ কুমার ঘোষ জানান, বরিশাল নগরীর পূজামন্ডপগুলোর মধ্যে সদর রোডস্থ জগন্নাথ মন্দির, সংকর মঠ, বড় কালিবাড়ী মন্দির, ফলপট্টি ও ভাটিখানার মন্দিরে বড় পরিসরে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। দুর্গোৎসব চলাকালে সকল পূজামণ্ডপে প্রতিদিনই অঞ্জলি, প্রসাদ বিতরণ ও ভোগ-আরতি হবে। এছাড়া পূজা মণ্ডপগুলোতে আলোকসজ্জা, আরতি প্রতিযোগিতা, স্বেচ্ছায় রক্তদান, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, বরিশাল জেলায় এখন পর্যন্ত পূজা নিয়ে কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটেনি।

পঞ্জিকা মতে, এ বছর দেবী দুর্গা শ্বশুরালয় থেকে বাবার বাড়িতে আসছেন গজের (হাতি) পিঠে চড়ে। আর ফিরে যাবেন দোলায় (পালকি) চড়ে। বলা হয়ে থাকে, দেবীর এমন আগমনের ফলে পৃথিবীর শস্যভাণ্ডার পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে। আর দোলায় চড়ে ফিরলে রোগ-ব্যাধি দেখা দেয়।

শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষে বরিশালের সকল হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, সাবেক চীফ হুইফ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, বরিশাল ১ আসনের সাংসদ অ্যাডঃ তালুকদার মোঃ ইউনুস, জনতা ব্যাংকের পরিচালক এ্যাডঃ বলরাম পোদ্দার, বরিশাল মহানগর বিএনপি’র সভাপতি অ্যাডঃ মুজিবর রহমান সরোয়ার এমপি প্রমুখ।

বরিশাল কোতয়ালী থানার অফিসার-ইন-চার্জ মোঃ শাহিদুজ্জামান জানান, পূজা উপলক্ষে পূজামন্ডপগুলোকে ঘিরে নগরীর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পূজামণ্ডপগুলোর নিরাপত্তায় পর্যাপ্ত সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »