আর্কাইভ

গৌরনদীতে চাঁদার দাবিতে প্লাষ্টিক ফ্যাক্টরীতে হামলা-ভাংচুর ॥ নারী শ্রমিকসহ ১০ জন আহত

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ এক লক্ষ টাকা চাঁদার দাবিতে বরিশালের গৌরনদী পৌর এলাকার বড় কসবার একটি প্লাষ্টিক ফ্যাক্টরীতে সন্ত্রাসীরা দু’দফা হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করেছে। হামলায় ফ্যাক্টরীর নারী শ্রমিকসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জানা গেছে, ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের পাশ্ববর্তী গৌরনদী পৌর এলাকার বড় কসবা গ্রামের আলাউদ্দিন প্লাষ্টিক ফ্যাক্টরীর মালিক আলাউদ্দিন সরদারের কাছে গত ৫ অক্টোবর বিএনপি নেতা ও সাবেক পৌর কমিশনার মোঃ আলম সরদার ওরফে এলেবালীর পুত্র ইমরান সরদার ও তার সহযোগীরা এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দেয়ায় ইমরান গত ৯ অক্টোবর মোবাইল ফোনে চাঁদা পরিশোধের জন্য তাগিদ দিয়ে ১০ অক্টোবরের মধ্যে পরিশোধের হুমকি দেয়। আলাউদ্দিন সরদার অভিযোগ করেন, চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় গত সোমবার (১০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ইমরান সরদার তার সহযোগী আরিফ শরীফ, জুয়েল মোল্লা, ফয়সাল সরদারসহ ১০/১২ জন সন্ত্রাসীরা ফ্যাক্টরীর মধ্যে ঢুকে তাকে খুঁজতে থাকে। এসময় তাকে না পেয়ে তার ছোট ভাই আনিস সরদারকে মারধরসহ ফ্যাক্টরীতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করে। এ সময় ফ্যাক্টরীতে কর্মরত শ্রমিকরা এগিয়ে আসলে তাদের ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে সন্ত্রাসীরা বীরদর্পে স্থান ত্যাগ করে। খবর পেয়ে আলাউদ্দিন সরদার লোকজন নিয়ে ওইদিন রাত আটটার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে। আলাউদ্দিনের ফ্যাক্টরীতে পৌঁছার খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে দ্বিতীয় দফায় ফাক্টরীতে হামলা চালায়।

দু’দফা হামলায় মালিক আলাউদ্দিন সরদার, তার ভাই আনিস সরদার, জামাল সরদার, নারী শ্রমিক আলেয়া বেগম, জরিনা বেগম, মোহাম্মদ আলী, জব্বার হাওলাদার, পথচারী লিমন সরদারসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এ ঘটনায় আলাউদ্দিন সরদার বাদি হয়ে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গৌরনদী থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »