আর্কাইভ

গৌরনদীতে কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষনের তিনদিন পর মামলা রুজু

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বরিশালের গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের বাদুরতলা গ্রামের দিনমজুরের এক কিশোরী কন্যাকে (১৫) দু’বন্ধু কর্তৃক পালাক্রমে ধর্ষনের ঘটনার তিনদিন পর আজ বুধবার দুপুরে থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে।

ধর্ষক ও তাদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের হুমকির মুখে তিনদিন আত্মগোপনে ছিলো ধর্ষিতা কিশোরী ও তার পরিবারের সদস্যরা। অবশেষে আজ বুধবার দুপুরে গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম-পিপিএম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ধর্ষিতা কিশোরী ও তার পরিবারের সদস্যদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। তাৎক্ষনিক থানায় ধর্ষণ মামলা রুজু করে ওইদিনই পুলিশ হেফাজতে ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতা কিশোরীকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। ধর্ষিকা কিশোরীর দায়ের করা মামলায় আসামি করা হয়েছে সাদ্দাম সরদার ও ইমরান তালুকদারকে।

সূত্রমতে, বাদুতলা গ্রামের পুলিশ সদস্য মজিবর তালুকদারের বখাটে পুত্র ইমরান তার একাকি ঘরের তৈজসপত্র পরিস্কারের জন্য গত সোমবার সকালে পাশ্ববর্তী বাড়ির দিন মজুরের কিশোরী কন্যাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। একপর্যায়ে বখাটে ইমরান ও তার বন্ধু কালকিনি উপজেলার বনগ্রামের আব্দুর রব সরদারের পুত্র সাদ্দাম সরদার কিশোরীর মুখে কাপড় গুজে পালাক্রমে ধর্ষন করে। ধর্ষিতার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে ধর্ষকেরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওইদিন সন্ধ্যায় ধর্ষিতার মা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য ধর্ষক ও তাদের ভাড়াটিয়া লোকজনে ধর্ষিতা ও তার পরিবারকে বিভিন্ন ধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন করে। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে ধর্ষিতা কিশোরী ও তার পরিবারের সদস্যরা গত তিনদিন ধরে আত্মগোপন করেছিলো।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »