আর্কাইভ

শিক্ষার মান উন্নয়নে সরিকলে ব্যতিক্রমধর্মী মুক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ শিক্ষার মান উন্নয়নে অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষানুরাগীদের সমন্ময়ে আজ শুক্রবার বরিশালের গৌরনদীতে ব্যতিক্রমধর্মী মুক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই সভায় কলেজে শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ ঘোষনা করা হয়।

উপজেলার সরিকল ইউনিয়নের প্রত্যন্ত ও অবহেলিত হোসনাবাদ নিজাম উদ্দিন কলেজের পরিচালনা পর্ষদের উদ্যোগে ব্যতিক্রমধর্মী এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনতা ব্যাংকের পরিচালক ও কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি এডভোকেট বলরাম পোদ্দার বাবলু শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় আরো মনযোগী করার লক্ষে জনতা ব্যাংকের পক্ষ থেকে কলেজের গোল্ডেন জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের জন্য এককালীন ২৫ হাজার, জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের জন্য ১৫ হাজার ও জিপিএ প্রাপ্তদের ১০ হাজার টাকা প্রদানসহ বৃত্তি প্রদান করার ঘোষনা করেন।

কলেজ প্রাঙ্গনে সকাল দশটায় সহস্রাধীক অভিভাবক, শিক্ষক ও শিক্ষানুরাগীদের সমন্ময়ে মুক্ত আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ নির্মল চন্দ্র সিকদার। মুক্ত আলোচনা সভায় শিক্ষা ও কলেজের মান উন্নয়নে অভিভাবক ও শিক্ষানুরাগীরা দীর্ঘ ৩৯ বছরেও এ কলেজটি ডিগ্রী কলেজে উন্নিত না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন সরিকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন মিলন, গৌরনদী উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী খন্দকার শাহ আলম মঞ্জু, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ আলাউদ্দিন বালী, অভিভাবক আব্দুর রশিদ মাষ্টার, মোল্লা ডি.এল রাহী শাহজাহান, আব্দুল মান্নান মৃধা. মেজবা উদ্দিন আকন, নুরুল ইসলাম, সোহরাব হোসেন, সবুজ আকন, সাবিনা ইয়াসমিন, নজরুল ইসলাম, কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, মুক্তিযুদ্ধের ৯ নং সেক্টরের ৩ নং জোন কমান্ডার হোসনাবাদ গ্রামের নিজাম উদ্দিন আকন ৩৯ বছর পূর্বে ওই কলেজটি প্রতিষ্ঠা করেন। কলেজে যাতায়াতসহ নানা সমস্যা থাকা সত্বেও প্রতিবছর এ কলেজের শিক্ষার্থীরা মেধা তালিকায় স্থান করে আসছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »