আর্কাইভ

গৌরনদী ও উজিরপুর উপজেলার খেলোয়ারদের মধ্যে সংঘর্ষে ৩৫ জন আহত

নিজস্ব সংবাদদাতা : বরিশালের আউটার ষ্টোডিয়ামে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় দু’উপজেলার ফুটবল খেলোয়ার ও সমর্থকদের মধ্যে হামলা পাল্টা হামলা ও রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হয়েছে। এসময় দু’গ্র“পের সমর্থকেরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এতে খেলা দেখতে আসা দর্শকেরা দ্বিগবিদ্বিগ ছোঁটা ছুটি শুরু করলে পুরো ষ্টোডিয়াম এলাকায় আতংক দেখা দেয়। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। গুরুতর আহতদের বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ নিয়ে ওই দু’উপজেলাবাসীর মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এনিয়ে পূর্ণরায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল ডিসি কাপ ফুটবল টুনামেন্টের সেমিফাইনাল খেলায় গতকাল শনিবার বরিশাল শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ষ্টোডিয়ামে অংশগ্রহন করেন গৌরনদী ফুটবল একাদশ বনাম উজিরপুর ফুটবল একাদশ। খেলায় উজিপুর ফুটবল একাদশ ৫-১ গোলে গৌরনদী ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে। খেলা চলাকালীন সময় উভয়পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এরজেরধরে খেলা শেষে গৌরনদী একাদশের খেলোয়ার ও সমর্থকেরা ওই ষ্টোডিয়াম থেকে বেরিয়ে পাশ্ববর্তী আউটার ষ্টোডিয়ামের কাছে পৌঁছলে উজিরপুর একাদশের সমর্থকেরা গৌরনদী একাদশের সমর্থক ও খেলোয়ারদের ওপর অর্তকিত ভাবে হামলা চালায়। এসময় আত্মরক্ষার্থে গৌরনদী একাদশের সমর্থকেরাও পাল্টা হামলা চালায়। হামলা-পাল্টা হামলায় গৌরনদী একাদশের খেলোয়ার আল-মামুন, জাকির হোসেন, সমর্থক শাওন আহম্মেদ, সজিব, বাদশা, সরোয়ার হোসেন, উজিরপুর একাদশের সমর্থক মিজানুর রহমান ও আউয়ালসহ কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়।
 

এ খবর মুহুর্তের মধ্যে দু’উপজেলায় ছড়িয়ে পরলে চরম উত্তেজনা দেখা দেয়। ওই ঘটনার জেরধরে গৌরনদী একাদশের সমর্থকেরা বাড়ি ফেরার পথিমধ্যে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের উজিরপুরের ইচলাদী নাকমস্থানে পৌঁছলে উজিরপুরের সমর্থকেরা পূর্ণরায় তাদের (গৌরনদীর সমর্থকদের) ওপর হামলা চালায়। ওই হামলায় সমর্থক ভুট্টো, কমলেস, স্বপনসহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »