আর্কাইভ

তিতাসে নাটকের চিত্র ধারণ করতে গিয়ে ছিনতাইকারীদের কবলে শূটিং ইউনিট ॥ থানায় মামলা গ্রেফতার ১

মাহ্ফুজ ইসলাম শিপলু, দাউদকান্দি ॥ কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় ঢাকা থেকে পারফেক্ট ভিউ প্রডাকশন হাউজের মালামাল ভাড়া করার নাম করে অভিনব পন্থায় প্রতারণা করে প্রডাকশন হাউজের মালামাল, নগদ টাকা ও মোবাইলসহ বিভিন্ন মালামাল ছিনতাই করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার দিবাগত রাতে। এ ব্যাপারে তিতাস থানায় মামলা ও প্রধান হোতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিতাস থানা পুলিশ ও পারফেক্ট ভিউ প্রডাকশন হাউজের সূত্র থেকে জানা যায়, ঢাকার ইসলামী টিভির ভিডিও এডিটর হারুনুর রশীদ, দিগন্ত টিভির ভিডিও এডিটর কামাল পাশা ও আর টিভির তপন এবং রাজিব চার বন্ধু মিলে পারফেক্ট ভিউ প্রডাকশন হাউজ খুলে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ভিডিও চিত্র ধারণ ও অন্যান্য লাইটিং সামগ্রী ভাড়া দেন। তাদের প্রডাকশন হাউজ থেকে নাটকের চিত্র ধারণ ও এডিটিং এর জন্য কুমিল্লার তিতাস উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের আব্দুল মতিন সরকারের পুত্র মেহেদী হাসান মামুন তাদের ক্যামেরা ও অন্যান্য সরঞ্জামাদী ভাড়া করে ঢাকা থেকে রাতে দাউদকান্দির রায়পুর বাসষ্ট্যান্ডে আসে। রায়পুর থেকে মেহেদী হাসান মামুন সি.এন.জি যোগে ঢাকা থেকে আগত আল-আমিন, পলাশ, আব্দুল আমিনকে নিয়ে তিতাসের কদমতলীতে যায়। সেখান থেকে অনুষ্ঠানস্থলে একটু হেটে যাওয়ার কথা বলে আধা কিলোমিটার দূরে গেলে একদল ছিনতাইকারী তাদেরকে গতিরোধ করে মামুনসহ তাদেরকে মারধোর করে সঙ্গে থাকা দুটি দামী ক্যামেরা, ৪টি মোবাইল সেট, নগদ টাকা ও অন্যান্য সরঞ্জামাদী নিয়ে পালিয়ে যায়। কিন্তু ছিনতাই হওয়ার পর মেহেদী হাসান মামুন ঢাকা থেকে আসা লোকজনকে নিয়ে তার বাড়ী মাছিমপুরে চলে যায়। সকালে আব্দুল আমিন তাদের প্রডাকশন হাউজের মালিক কামাল পাশা ও হারুনুর রশীদকে ব্যাপারটি জানায়। তারা গতকাল মঙ্গলবার তিতাস থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। পরে তিতাস থানা ওসি (তদন্ত) নবীর হোসেন তাদেরকে সঙ্গে নিয়ে মেহেদী হাসানের বাড়ীতে যায় এবং তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদের পর মেহেদী হাসান মামুন পুলিশের নিকট ঘটনাটি সাজানো নাটক বলে স্বীকার করেন। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বিকালে পুলিশ কদমতলী  থেকে দুটি ক্যামেরা ও অন্যান্য সরঞ্জামাদী উদ্ধার করা হলেও নগদ টাকা ও মোবাইল সেট উদ্ধার করা যায়নি। এ ব্যাপারে ইসলামী টিভির ভিডিও এডিটর হারুনুর রশীদ জানান, নাটকের চিত্র ধারণ করতে গিয়ে ছিনতাইকারীদের নাটকের শিকার হয়েছে আমাদের প্রডাকশন হাউজের লোকজন। এ ব্যাপারে তিতাস থানা ওসি (তদন্ত) নবীর হোসেন সর্বাত্মক সহযোগিতার কারণে আমাদের মালামালগুলো উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

তিতাস থানার ওসি (তদন্ত) নবীর হোসেন বলেন, আব্দুল আমিন বাদী হয়ে তিতাস থানায় গ্রেফতারকৃত মেহেদী হাসান মামুন(২৫)সহ ৮ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তের স্বার্থে অন্যান্য আসামীদের নাম বলা সম্ভব হচ্ছে না। গ্রেফতারকৃত মেহেদী হাসানকে আজ বুধবার কুমিল্লার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »