আর্কাইভ

ইংল্যান্ড লায়ন্সকে ৬ উইকেটে হারিয়ে ‘এ’ দলের শুভ সূচনা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ অতিথি ইংল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে ৬ উইকেটে হারের পর স্বাগতিক ‘এ’ দল তুমুল সমালোচনায় পড়ে। কিন্তু সিরিজের প্রথম ম্যাচে সেই একই ফলাফলে ৬ উইকেটে জয় তুলে রিয়াদের ‘এ’ দল শুভ সূচনা করেছে। অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের অপরাজিত ৩৮ আর ইমরুলের ৫৩ রানে স্বাগতিক ‘এ’ দল সহজ জয় পেয়েছে।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী বিভাগীয় স্টেডিয়ামে রিয়াদ বাহিনী পাত্তাই দেয়নি ইংল্যান্ড লায়ন্সকে। কি ব্যাটে আর কি বলে! কোনো বিভাগেই দাঁড়াতে পারেনি অতিথি ‘এ’ দল।
অতিথি দলের প্রাপ্তি বলতে ছিল দিনের শুরুতে টস জয়। টস জিতে রিয়াদদের ফিল্ডিং করার আমন্ত্রণ জানায় ইংল্যান্ড ‘এ’ দল। কিন্তু পেসার আল আমিন হোসেন, ডান হাতি স্পিনার নূর হোসেন আর জাতীয় দলের বাঁ হাতি স্পিনার সোরওয়ার্দি শুভর আক্রমনে দিশেহারা হয়ে পড়ে অতিথি দলের ব্যাটিং লাইন আপ। মাত্র ৩৯ ওভারেই ১৩৯ রানে অলআউট হয়ে যায় অতিথি দল।
দলীয় ১০ রানে ওপেনার রায়কে দিয়ে স্পিনার আলাউদ্দিন বাবু উইকেট শিকারের পর্ব শুরু করেন। এরপর ধারাবাহিক ভাবেই উইকেটের পতন ঘটতে থাকে। মিডল অর্ডারে অতিথি দলের বাটলারের ৪৫ রানই ছিল উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিগত স্কোর।

আল আমিন ৯ ওভারে ২টি মেডেন দিয়ে মাত্র ১৮ রানে শিকার করেন ৩ উইকেট, নূর হোসেন ৮ ওভারে ৩২ রানে তুলে নেন ৩টি আর অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৭ ওভারে ২৫ রানে নেন ১টি, শুভ ৯ ওভারে ২৭ রানে বিনিময়ে শিকার করেন ২টি এবং আলাউদ্দিন বাবু ৬ ওভারে ৩২ রানে ১টি।

১৪০ রানের মামুলি টার্গেট তাড়া করতে নামেন দুই ওপেনার ইমরুল কায়েস ও রনি তালুকদার। দলীয় ৪৭রানে আর ব্যক্তিগত ২৩ রানে রনি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরত যান। ইমরুলের সঙ্গে জুটি বাঁধেন জহুরুল ইসলাম। ৪৪ রানের পার্টনারশিপ গড়ে জহুরল ব্যক্তিগত ২৩ রানে বোল্ড হলেন। ইমরুল তখনও টিকে ছিলেন। অধিনায়ক রিয়াদের সঙ্গে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৩৬ রান যোগ করেন স্কোর বোর্ডে। আর তাতেই জয়টা সহজ হয়ে যায় ‘এ’ দলের জন্য।

দলীয় ১২৭ রানে ইমরুলের ৫৩ রানের ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে বোল্ড হয়েই। ৩ উইকেটে স্কোর ১২৭, আর ১২৯ রানে ফেরত যান শুভ মাত্র ১ রান যোগ করে। এরপর আর পেছনে থাকাতে হয়নি ‘এ’ দলকে। জয়ের জন্য দরকার ছিল ১১ রান। রিয়াদ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলেন। সঙ্গে থাকা তাসামুল হকের কোন রান করার প্রয়োজন হয়নি। রিয়াদ শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত ক্রিজে থেকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়লেন আর অপরাজিত রইলেন ৩৮ রানে। বাংলাদেশের স্কোর ৪ উইকেটে ৩৩ ওভারে ১৪১ রান। ফলাফল ৬ উইকেট জয়ী।
আজকের বাংলা

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »