আর্কাইভ

স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত গ্রামের জনগন – কর্মস্থলে অনুপস্থিত থেকে চেম্বার ব্যবসায় মনোনিবেশ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ কর্মস্থলে অনুপস্থিত থেকে তিনি চেম্বার ব্যবসায় মনোনিবেশ করেছেন। সংশ্লিষ্ট কতিপয় কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে তিনি প্রতি মাসেই কর্মস্থলে না এসে তুলে নিচ্ছেন সরকারি বেতন ভাতা। ফলে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন গ্রামের সাধারন জনগন। যে কারনে এবারও ভেস্তে যেতে বসেছে স্বাস্থ্য সেবায় সরকারি সব উদ্যোগ। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আওতাধীন মাহিলাড়া ইউনিয়নের গেরাকুল গ্রামে অবস্থিত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গ্রামের দরিদ্র জনগনের সেবার মান উন্নয়নে সরকারি ভাবে প্রতিটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে বাধ্যতামূলক ভাবে চিকিৎসকদের নিয়োগ করা হয়। সেমতে গত চার মাস পূর্বে গেরাকুল ও তার পাশ্ববর্তী লেবুতলী, হাজিপাড়া, কাসেমাবাদ, দিয়াশুর, কালনাসহ কয়েকটি গ্রামের হাজার-হাজার সাধারন জনগনের একমাত্র চিকিৎসা কেন্দ্র গেরাকুল স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক হিসেবে যোগদান করেন ডাঃ অসিম কুমার ধর। ভুক্তভোগী এলাকাবাসিদের দেয়া অভিযোগে জানা গেছে, যোগদানের পর তিনি (ডাঃ অসিম) দু’দিন ওই স্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত ছিলেন। পরবর্তীতে রহস্যজনক কারনে তিনি কর্মস্থলে অনুপস্থিত থেকে বরিশাল শহরে চেম্বার ব্যবসা খুলে বসেছেন। গত তিনদিন পূর্বে (১৯ জানুয়ারি) গেরাকুল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রে উপ-সহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার হিসেবে আরিফা আক্তার যোগদান করেন। গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যোগদান করেন নৈশ প্রহরী ও পিয়ন আব্দুস সালাম।

স্থানীয় সমাজসেবক গোলাম মোর্শেদ পান্না মিয়া ও শরীফ মোঃ জামাল অভিযোগ করেন, চিকিৎসক ডাঃ অসিম কুমার ধরের সাথে তারা মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেছেন। তিনি (ডাঃ অসিম) জানিয়েছেন, সে অন্যত্র বদলি হয়ে গেছেন। এ ব্যাপারে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ রবীন্দ্রনাথ গাইন রবিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ডাঃ অসিম কুমার ধর গেরাকুল স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রেই কর্মরত রয়েছেন। স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, উন্নত যোগাযোগ ও থাকার সু-ব্যবস্থা থাকা সত্বেও ডাঃ অসিম কুমার ধরসহ ফ্যামাসিষ্ট ও অন্যান্য পদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কতিপয় কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে নিজ কর্মস্থল (গেরাকুল স্বাস্থ্য কেন্দ্রে) অনুপস্থিত থেকে ডেপুটিশনে অন্যত্র কাজ করছেন। ফলে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন গ্রামের সাধারন জনগন। স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত ভুক্তভোগী এলাকাবাসিরা জরুরি ভিত্তিতে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। চেম্বার ব্যবসার অভিযোগ অস্বীকার করে ডাঃ অসিম কুমার ধর বলেন, অসুস্থ্য থাকায় আমি কর্মস্থলে অনুপস্থিত রয়েছি।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »