আর্কাইভ

বাঁধা উপেক্ষা করে সোমবার বরিশালে গণমিছিল করার ঘোষনা দিয়েছে চারদলীয় ঐক্যজোট

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ যত বাঁধাই আসুক না কেন সোমবার বরিশালে গণমিছিল করার ঘোষনা দিয়েছে বরিশাল জেলা ও মহানগর বিএনপিসহ চারদলীয় ঐক্য জোটের নেতৃবৃন্দরা। পৃথকভাবে বরিশাল বিএনপির বিবাধমান দু’গ্রুপ এ গণমিছিল কর্মসূচী পালন করবে। আজ রবিবার পৃথক সাংবাদিক সম্মেলনে এ ঘোষণা দিয়েছেন ঐক্য জোটের নেতৃবৃন্দরা। অপরদিকে নাশকতামূলক কর্মকান্ড প্রতিরোধে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা নগরজুড়ে কড়া নিরাপত্তা জোরদার করেছেন। জোট নেতৃবৃন্দের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করে উল্লেখিত ঘোষনা দেয়ার পর শহর জুড়ে আতংক দেখা দিয়েছে।

চারদলীয় ঐক্য জোটের ব্যানারে বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সদর আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট মজিবর রহমান সরোয়ারের কাউনিয়া বাসভবনে আজ রবিবার দুপুরে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সেখানে মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, রবিবার নগরীর সদর রোড দলীয় কার্যালয় থেকে বিএনপির গণমিছিল শুরু হওয়ার কথা ছিলো। কিন্তু বিভাগীয় শহরগুলোতে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা না থাকা সত্বেও অন্যান্য বিভাগের ন্যায় বরিশালেও ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। এটা সম্পূর্ন মানবতা বিরোধী। সরকার গণতান্ত্রিক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করতে না দিয়ে গণতন্ত্রকে গলা টিপে হত্যা করছে। এমপি সরোয়ার আরো বলেন, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় নগরীর সদর রোড দলীয় কার্যালয় থেকে গণমিছিল বের হবে। কেউ শান্তিপূর্ন পরিবেশের গণমিছিলে বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করলে এর দায়-দায়িত্ব বিএনপি নেবে না। যে কোন ভাবেই হোক গণমিছিল কর্মসূচী বাস্তবায়ন করা হবে। সাংবাদিক সম্মেলনে বরিশাল উত্তর জেলা বিএনপির সভাপতি মেজবাহ্ উদ্দীন ফরহাদ-এমপি, মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক এ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহিন, উত্তর জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আকন কুদ্দুসুর রহমান, সাবেক এমপি বিএনপি নেতা মোশারেফ হোসেন মঙ্গু, আবুল হোসেন খান, মহানগর জামায়াতে ইসলামীর আমীর এ্যাডভোকেট মুয়াযযম হোসাইন হেলাল, সেক্রেটারী আমিনুল ইসলাম খসরু, পশ্চিম জেলা জামায়াতে ইসলামীর আমীর মাওলানা হাবিবুর রহমান, পূর্ব জেলার আমীর অধ্যাপক আঃ জব্বারসহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অপরদিকে আজ রবিবার দুপুর ২টায় সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে দক্ষিন জেলা বিএনপি। নগরীর কালু শাহ্ সড়কের জেলা বিএনপির সভাপতি আহসান হাবিব কামালের বাস ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। আহসান হাবিব কামাল বলেন, দেড় মাস আগে গণমিছিলের কর্মসূচী দিয়েছিলেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। এই কর্মসূচী বানচাল করার জন্য আওয়ামীলীগ মাত্র দু’দিন আগে কর্মসূচী দিয়েছে। এর ফলে ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরগুলো জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা। তিনি আরো বলেন, যতো বাঁধাই আসুক না কেন, ১৪৪ ধারা জারি করা হোক না কেন বরিশালে সোমবারের গণমিছিল কেউ বন্ধ করতে পারবে না। দুপুর ২টায় নগরীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বর থেকে গণমিছিল বের করা হবে। সাংবাদিক সম্মেলনে জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিনসহ দলীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »