আর্কাইভ

গৌরনদীতে গলায় ফাঁস লাগানো

গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, পৌর এলাকার লাখেরাজ কসবা গ্রামের মুদী ব্যবসায়ী মস্তুফা সরদার দুই মাস পূর্বে দ্বিতীয় বিবাহ করেন। এ নিয়ে তার প্রথম স্ত্রী তিন সন্তানের জননী কহিনুর বেগমের (৩৫) সাথে প্রায়ই দাম্পত্য কলহ লেগে থাকত। দাম্পত্য কলহের জের ধরে গত রোববার বিকেলে (৩১ জানুয়ারি) রহস্যজনক ভাবে কহিনুর নিখোঁজ হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিবেশি রুহুল সিকদার মস্তফার ঘরের মধ্যে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ মস্তফার বসত ঘরের মাঁচা (দোতালা) থেকে গৃহ বধুর গলায় মাফলার দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় গৃহবধূ কহিনুরের লাশ উদ্ধার করে।
এলাকাবাসি জানায়, গত বুধবার থেকে গৃহবধূর স্বামী মস্তফা সরদার পলাতক রয়েছে। গৌরনদী থানার এস.আই শাহ জালাল লাশের সুরাতহাল রিপোর্ট শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে জানান, গৃহবধুর শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। লাশের ময়না তদন্ত শেষে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে বলে এস.আই উল্লেখ করেন। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত ( বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সাতটা) পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে লাল মিয়া নামের একজনকে গ্রেফতার করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »