আর্কাইভ

বেপরোয়া ট্রাক তিনটি দূর্ঘটনার পর আটক করেছে জনতা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বেপরোয়া গতিতে আসা একটি ট্রাক তিনটি দূর্ঘটনার পর জনতা ও পুলিশের হাতে আটক হয়েছে। এসময় ট্রাকের ড্রাইভার ও হেলপার পালিয়ে যায়। শেষ দূর্ঘটনাটি ঘটেছে ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেলে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের গৌরনদী উপজেলার কসবাএলাকায়।

গৌরনদী হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সোহেল রানা জানান, বরিশাল থেকে ফরিদপুরগামী ট্রাক মহাসড়কের ইচলাদি নামকস্থানে পথচারীকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে আসে। এ খবর পেয়ে গৌরনদী হাইওয়ে থানা পুলিশ ট্রাকটি আটক করার জন্য গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ডের মহাসড়কে ব্যারিকেট সৃষ্টি করে। ট্রাকটি বেপরোয়াগতিতে গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ড এলাকা অতিক্রমকালে স্থানীয় পথচারী রুবেল সরদারকে (২৮) চাঁপা দিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় সরকারি গৌরনদী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জুবায়েরুল ইসলাম সান্টু ভূঁইয়ার মটরসাইকেল নিয়ে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা সরদার মোঃ রুবেল ট্রাকটিকে ধাওয়া করে। একপর্যায়ে মহাসড়কের কসবা এলাকায় মটরসাইকেল দিয়ে বেপরোয়া ট্রাকটিকে ব্যারিকেট দিলে ট্রাকটি মটরসাইকেলের ওপর দিয়ে চালিয়ে যায়। এতে মটরসাইকেলটি দুমরে মুচরে আরোহী রুবেল সরদার গুরুতর আহত হয়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা ঝাঁপিয়ে পরে ট্রাকটিকে আটক করে। গুরুতর আহত রুবেল সরদারকে প্রথমে গৌরনদী ও তাৎক্ষনিক আশংকাজনক অবস্থায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »