আর্কাইভ

নারী দিবসে বিশেষ আয়োজন আগৈলঝাড়ায় মহিলাদের নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা

খোকন আহম্মেদ হীরা, গৌরনদী ॥ আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার উদ্যোগে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার পয়সারহাট নদীতে ব্যতিক্রমধর্মী নারীদের নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নদীর দু’তীরে ব্যতিক্রমধর্মী নারীদের নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা দেখার জন্য হাজার-হাজার নারী-পুরুষের ঢল নামে।

উপজেলার পয়সারহাট নদীর তীরবর্তী কদমবাড়ি গ্রামের বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা তরঙ্গ-এর আয়োজনে ও নেসলে বাংলাদেশের আর্থিক সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় প্রতিটি দলে ১১জন করে নারীদের ১৬টি দল অংশগ্রহন করেন। নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতা উপলক্ষে কদমবাড়ী গ্রামের পয়সারহাট নদীর তীরে মেলা বসেছিল। বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় নারীদের নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতার উদ্বোধন উপলক্ষে তরঙ্গ সংস্থার মাঠে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কহিনুর ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আগৈলঝাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তুজা খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাকাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিপুল দাস, রামশীল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান খোকন চন্দ্র বালা, ইংল্যান্ডের দাতা সংস্থার প্রতিনিধি সিনা দে।

বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা আবুল বাশার হাওলাদার, তরঙ্গের প্রশিক্ষক স্বরমালা অধিকারী প্রমুখ। এছাড়াও ১১টি বিদেশী রাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সংস্থার নির্বাহী পরিচালক কোহিনুর ইয়াসমিন বলেন, সমাজে নারীরা আজ অবহেলিত নয়। আমরা নারীরা আর পিছিয়ে থাকতে চাইনা, চাই সম অধিকার। এ অধিকার আদায়ের অংশ হিসেবেই নারীদের সমন্ময়ে আমরাই প্রথম ১৯৯৪ সন থেকে নারীদের নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতার আয়োজন করে আসছি। নৌকা বাইচ প্রতিযোগীতায় ডালিয়া, কলমি, গাঁদা, জুঁই, গোলাপ, পদ্ম, বেলী, সুর্যমুখি, লাল গোলাপ, শাপলা, শিউলি, চাঁপা, শিমুল, জবা, পলাশ নামের ১৫টি ও ইংল্যান্ডের দাতা সংস্থার প্রতিনিধি সিনা দে’র নেতৃত্বে ১১ জনের একটি বিদেশী মহিলা দল অংশগ্রহণ করেন।

প্রতিযোগীতায় প্রথমস্থান অধিকার করেন গাঁদাফুল দলের দলনেত্রী মিতু অধিকারীর, দ্বিতীয়স্থান গোলাপ ফুল দলনেত্রী ফুলমালা রায়, তৃতীয়স্থান জুঁই ফুল দলনেত্রী স্বরস্বতি জয়ধর। শেষে প্রধান অতিথি প্রতিযোগীতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। বিকেলে ওইসব নারীদের সমন্ময়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »