আর্কাইভ

বরিশালে অযথাই বন্ধ হওয়া বাস ও লঞ্চ চলাচল শুরু – যাত্রীদের উপচে পরা ভীড়

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বিএনপি সহ ১৮দলের ডাকা সমাবেশকে রুখতে নদী ও সড়ক পথে বরিশাল টু ঢাকা যোগাযোগ মাধ্যমকে বন্ধ করে দেয়ার পর গতকাল দুপুর থেকে লঞ্চ ও বাস চলাচল শুরু হয়েছে। তবে কে বা কার নির্দেশে রবিবার এ দুটি যোগাযোগ পথ বন্ধ করা হয়েছে তার কোন সদুত্তর পাওয়া যায়নি প্রশাসনের পক্ষ থেকে। গতকাল সকাল থেকে কোন বাস না ছাড়ায় হাজারও যাত্রীদের পোহাতে হয়েছে চরম দূর্ভোগ। তবে একদিন বন্ধ থাকার ফলে বাস স্টান্ড ও লঞ্চঘাটে অতিরিক্ত যাত্রীদের ভীড় সহ দূর্ভোগ চোখে পরেছে। সুযোগে লঞ্চ ও সদরঘাটের দালালরা টিকেট বিক্রয়ে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে বলে অভিযোগ রয়েছে। সরেজমিনে যাত্রীদের মধ্য থেকে অনেকেই সরকারের সমালোচনা করে নানা প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছে।

কোন সুনির্দিষ্ট ঘোষনা ছাড়া পরস্পর দুটি যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ থাকায় চরম দূর্ভোগে পরে দোয়ারিকা ও  গৌরনদী থেকে আসা ব্যবসায়ী সোহেল এন্টারপ্রাইজের মালিক সোহেল সরদার ও তার বন্ধু কামাল মোশাররফ জানান, বর্তমান সরকার জনগনকে ভোগান্তি দেয়ার জন্যই অঘোষিতভাবে সরকার হরতালের ডাক দিয়েছে। যার নেপথ্য কারন হিসেবে এসব যাত্রীরা মনে করছেন গতকাল বিএনপির ডাকা  মহাসমাবেশে থেকে আসা নেতা-কর্মীদের উপস্থিতি কমাতে এ দুটি যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধ করা দেয়া হয়েছে। পরে দুপুর ২টার পর নথুল্লাবাদ বরিশাল কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে দূর পাল্লার বাস ছাড়তে দেখে গেছে।

বিষয়টি জানতে বরিশাল বাস মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, কোন আনুষ্ঠানিক ঘোষনা ছাড়াই বরিশাল পুলিশ প্রশাসন বাস চলাচল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে। তাই বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। দুপুর ২টার পরে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে আবার বাস চালু করা হয়েছে। গত রবিবার বিকেল থেকে গতকাল দুপুর ২টা পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধ থাকায় তাদের আনুমানিক ২০লক্ষ টাকা লোকসান হয়েছে বলে জানান তিনি।

অপর একটি মাধ্যম বরিশাল ঢাকা লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি আজিজুল হক আক্কাসের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, গতকাল বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত ১৮দলের সমাবেশে ঢাকা গামী নেতা-কর্মীদের রুখতেই লঞ্চগুলো প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ শামসুদ্দিন জানান, লঞ্চ ও বাস চলাচলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন প্রকার প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়নি। লঞ্চ ও বাস কেন বন্ধ রাখা হয়েছে তা তার বোধগম্য নয়। লঞ্চ মালিক সমিতির সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে, আজ থেকে বাস চলাচল শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »