আর্কাইভ

বিআইডব্লিউটিএ’র পরিচালক সাসপেন্ড – মেঘনার ট্যাঙ্কার উদ্ধারে চট্টগ্রাম থেকে এসেছে নৌ-বাহিনীর জাহাজ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশালের মেহেন্দীগঞ্জের মেঘনায় নিমজ্জিত তেলবাহী ট্যাঙ্কার এম.টি মেহেরজানকে উদ্ধার অভিযানের আর কোনো অগ্রগতি নেই। উদ্ধার অভিযান তিনদিন পর শুরু করার অভিযোগে বিআইডব্লি¬উটিএ’র পরিচালক (নৌ-সংরক্ষণ) এমাদদুল হককে বুধবার সাসপেন্ড করা হয়েছে। উদ্ধাকারী জাহাজ রুস্তুম ও হামজা তিনদিন পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় তার বিরুদ্ধে বিআইডব্লি¬উটিএ’র চেয়ারম্যান ড. মোঃ শামছুদ্দোহা খন্দকার এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অভিযানের অগ্রগতি না থাকলেও উদ্ধার কাজে অংশ নেয়া বিআইডব্লিউটিএ, নৌ-বাহিনী ও কোস্টগার্ডের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্ব। বুধবার নৌ-বাহিনীর জাহাজ সৈকত চট্টগ্রাম থেকে কিছু যন্ত্রপাতি নিয়ে দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছলেও কাজ শুরু করেনি। জাহাজটি বেলা দেড়টায় মেঘনার কালিগঞ্জে পৌঁছেছে। বিআইডব্লি¬উটিএ’র সাথে জাহাজের কমান্ডার বিকেলে যোগাযোগ করেছেন। রাতে সৈকত জাহাজে বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তাদের সাক্ষাতের জন্য বলা হয়। বিআইডব্লিউটিএ’র পরিচালকরাসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সৈকতের বৈঠকে যেতে রাজি হননি। শেষ খবর অনুযায়ী সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় নৌ-বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপে সৈকতের কমান্ডার সহ নৌ-বাহিনীর অপর দু’লেফটেনটেন্ট ও কোস্টগার্ডের কমান্ডার বিআইডব্লিউটিএ’র উদ্ধারকারী জাহাজ সৈকতে বৈঠকে মিলিত হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। রাত আটটায় ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে এম.টি মেহেরজানকে উদ্ধারে আজ বৃহস্পতিবার কি পদক্ষেপ নেয়া হবে। ইতিবাচক কোনো সিদ্ধান্ত না হলে এম.টি মেহেরজানকে আজই পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হতে পারে।

আরও পড়ুন

Back to top button