আর্কাইভ

গৌরনদীতে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতনের পর অবরুদ্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবিতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের জয়শুরকাঠী গ্রামের এক গৃহবধূকে অমানুষিক নির্যাতনের পর দু’দিন অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয়দের সহায়তা অবরুদ্ধর হাত থেকে নির্যাতিতা গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

জানা গেছে, উপজেলার গেরাকুল গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী মীর্জে আলী সরদারের কন্যা ঝর্না বেগমকে (২০) গত তিনবছর পূর্বে সামাজিক ভাবে বিয়ে দেয়া হয় একই উপজেলার জয়শুরকাঠী গ্রামের রতন ফকিরের পুত্র বেল্লাল ফকিরের সাথে। বিয়ের সময় বরপক্ষের দাবিকৃত যৌতুকের নগদ ৫০ হাজার টাকাসহ মোট লক্ষাধিক টাকার মালামাল দেয়া হয়। বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন অজুহাতে যৌতুকলোভী বেল্লাল পূর্ণরায় ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের জন্য ঝর্নাকে শারিরিক নির্যাতন করে আসছিলো। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার রাতে বেল্লাল ও তার পরিবারের লোকজনে গৃহবধূ ঝর্নাকে অমানুষিক নির্যাতন করে গুরুতর জখম করে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গৃহবধূর ভাই মিজানুর রহমান ও হাফিজুল সরদার স্বামীর বাড়ি থেকে অবরুদ্ধ ঝর্না ও তার নয় মাসের একমাত্র কন্যা মীমকে উদ্ধার করে। ওইদিনই গৃহবধূ ঝর্ণাকে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গৌরনদীতে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতনের পর অবরুদ্ধ

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »