আর্কাইভ

গৌরনদীতে প্রকাশ্য অস্ত্র মহরা দিয়ে দু’জনকে কুপিয়ে জখম – প্রতিবাদে গ্রামবাসির বিক্ষোভ মিছিল

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ পূর্ব শত্রুতার জেরধরে আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গৌরনদী উপজেলার দিয়াশুর গ্রামের কতিপয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্য অস্ত্র মহরা দিয়ে গেরাকুল গ্রামের দু’যুবককে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে। আহতদের মুর্মুর্ষ অবস্থায় বরিশাল ও গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে গেরাকুল গ্রামের বাসিন্দারা সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবিকে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে।

জানা গেছে, অতিসম্প্রতি গেরাকুল গ্রামের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বসে তুচ্ছ ঘটনার জেরধরে দিয়াশুর গ্রামের চিহ্নিত সন্ত্রাসী কাওসার সরদার ও সোহেল মল্লিকের সাথে গেরাকুল গ্রামের কতিপয় যুবকদের বাকবিতন্ডা হয়। এ ঘটনার জেরধরে শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে দিয়াশুর গ্রামের যুবলীগ নেতা টুকু মল্লিকের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গেরাকুল গ্রামে প্রকাশ্য মহড়া দিয়ে ভীতি সৃষ্টি করে। এসময় সন্ত্রাসীরা ওই গ্রামের নির্জনস্থানে পেয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে গেরাকুল গ্রামের দিনমজুর রানা ওরফে ফালান শরীফ ও বেল্লাল সরদারকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী ভাবে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। খবর পেয়ে স্থানীয়রা সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে মুর্মুর্ষ অবস্থায় আহতদের উদ্ধার করে। সন্ত্রাসী হামলায় গুরুতর আহত ফালান শরীফকে বরিশাল শেবাচিম ও বেল্লাল সরদারকে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। গৌরনদী থানার ওসি আবুল কালাম জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য জোড়প্রচেষ্ঠা চলছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »