আর্কাইভ

সাধারন রোগীদের চরম দুর্ভোগ – বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের ইন্টার্নী চিকিৎসকদের কর্মবিরতী

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে ইন্টার্নী চিকিৎসকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী শুরু হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে মৃত রোগীনির স্বজনদের হামলায় ইন্টার্নী চিকিৎসক আহত ও ভাংচুরের ঘটনায় অপর ইন্টার্নী চিকিৎসকেরা বিক্ষোভ মিছিল ও টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। পরে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা না পর্যন্ত তাদের কর্মবিরতী অব্যাহত থাকবে বলে ঘোষনা করেন। ইন্টার্নী চিকিৎসকদের কর্মবিরতীর কারনে হাসপাতালে জরুরী চিকিৎসা সেবা ছাড়া সকল ধরনের চিকিৎসা সেবা বন্ধ রয়েছে। ফলে সাধারন রোগীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

ইন্টার্নী ডক্টরস্ এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোঃ মেহেদী হাসান জানান, গত মঙ্গলবার গভীর রাতে মস্তিস্কে রক্তক্ষরনে আক্রান্ত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি হন গৌরনদী উপজেলার দক্ষিন পালরদী গ্রামের বাসিন্দা মুনসুর আলী সিপাহীর স্ত্রী করিমন বেগম (৬০)। হাসপাতালের চতুর্থ তলায় মেডিসিন ইউনিট-৩ এ চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ভোরে করিমন বেগমের মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর জন্য ইন্টার্নী চিকিৎসকদের অবহেলাকে দায়ী করে ইন্টার্নী চিকিৎসক তন্ময় দাসকে মারধর করে মৃত রোগীনির পুত্র মামুনুর রশিদ ও তার সহযোগীরা। পরে বিক্ষুব্ধরা হাসপাতালে ভাংচুর করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ইন্টানী চিকিৎসকেরা কর্মবিরতীর ঘোষনা করেন। তিনি আরো জানান, হামলাকারীদের গ্রেফতার করা না পর্যন্ত তাদের এ কর্মবিরতী অব্যাহত থাকবে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »