আর্কাইভ

গৌরনদীর কারাবরেণ্য ছাত্রলীগ নেতা সান্টু ভূঁইয়াকে গণসংবর্ধণা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে দীর্ঘ তিন মাস কারাভোগের পর জামিনে মুক্তিপ্রাপ্ত সরকারি গৌরনদী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জুবায়ের ইসলাম সান্টু ভূঁইয়াকে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। উপজেলা আ’লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন, ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের জনসাধারনের উদ্যোগে দুপুর বারোটায় উপজেলা ছাত্রলীগ কার্যালয়ে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়। এছাড়াও সান্টু ভূঁইয়ার মুক্তির খবরে গৌরনদীতে মিষ্টি বিতরণ করেছেন স্থানীয় জনতা, ব্যবসায়ী ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

সূত্রমতে, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রুবেল সরদারের সাথে একই ওয়ার্ডের ছাত্রলীগ নেতা রবিউল খানের দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিলো। পূর্ব বিরোধের জেরধরে গত ২৬ নবেম্বর সন্ধ্যায় রুবেল ও তার সমর্থকেরা রবিউল খানকে লক্ষ্য করে গুলি বর্ষণ করে। এ ঘটনার জেরধরে ওইদিন রাত দশটার দিকে রবিউল ও তার সমর্থকেরা গৌরনদী বাসষ্ট্যান্ডে বসে রুবেল সরদার ও তার সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। রুবেল ও তার সহযোগীরা পাল্টা হামলার সময় তিনটি শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরনসহ ব্যাপক গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। হামলা পাল্টা হামলা ও সংষর্ষে উভয় গ্র“পের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়। আশংকাজনক অবস্থায় কতিথ ছাত্রলীগ কর্মী রুমান ফকির ২৭ নবেম্বর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। এ ঘটনায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে একটি বিশেষ মহলের যোগসাজসে থানা পুলিশ গ্রেফতার করে সরকারি গৌরনদী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক জুবায়ের ইসলাম সান্টু ভূঁইয়াকে। ওই মামলায় দীর্ঘ তিন মাস কারাভোগের পর অবশেষে সোমবার জামিনে মুক্তি লাভ করে ছাত্রলীগ নেতা জুবায়ের ইসলাম সান্টু ভূঁইয়া। একই মামলার অন্যান্য আসামিরাও জামিনে মুক্তি লাভ করেছেন।

গৌরনদীর কারাবরেণ্য ছাত্রলীগ নেতা সান্টু ভূঁইয়াকে গণসংবর্ধণা

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »