আর্কাইভ

বরিশালে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত-২০ – সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল নগরীর বেশ কয়েকটিস্থানে হরতাল সমর্থক বিএনপির নেতা-কর্মীদের সাথে মঙ্গলবার ভোরে পুলিশের ও আ’লীগ নেতাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। এ সময় পুলিশ চার জনকে আটক করেছে।

জানা গেছে, নগরীর নবগ্রাম রোড এলাকায় মহানগর ছাত্রদলের সিনিয়র সহসভাপতি আফরোজা খানম নাসরিনের নেতৃত্বে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা রাস্তায় টায়ারে অগ্নিসংযোগ করে হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ করে। এসময় পুলিশ তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে নেতা-কর্মীরা পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। নগরীর বগুড়া রোড থেকে পুলিশ ফরহাদ নামের এক পিকেটারকে গ্রেফতার করে। নগরীর বটতলা এলাকায় পিকেটাররা বেশ কয়েকটি যানবাহন ভাংচুর ও একটি রিকসায় অগ্নিসংযোগ করে। এসময় পিকেটারদের সাথে ছাত্রলীগ ও পুলিশের ত্রি-মুখী সংঘর্ষ হয়। এসময় ছাত্রদল নেতা সাইফুল ইসলাম সুজন, যুবদল নেতা রুস্তম মল্লিক ও শামীম আহসানসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এছাড়া ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক ও বরিশাল-মুলাদী সড়কের বিভিন্ন স্থানে গাছের গুঁড়ি ফেলে এবং ব্রিজের পাটাতন খুলে সড়ক অবরোধ করে পিকেটাররা। এতে বরিশাল থেকে মুলাদী ও হিজলা উপজেলার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এছাড়া বরিশাল-ভোলা সড়কে তিনটি ট্রাকে ভাংচুরের ঘটনায় দু’জনকে আটক করে পুলিশ।

অপরদিকে বাবুগঞ্জে পিকেটিংকালে ছাত্রদল ও আ’লীগের সাথে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এতে ছয়টি মটরসাইকেল, একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভাংচুর করা হয়। এসময় আহত হয় ১০ জন। সোমবার রাতে হরতালের সমর্থনে নগরীতে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল থেকে দু’টি টেম্পো ভাংচুর করা হয়। ওইসময় একজনকে আটক করে পুলিশ।

বরিশালে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে আহত-২০ - সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »