আর্কাইভ

গৌরনদীতে বাল্য বিবাহ পরানোর দায়ে কাজীর জরিমানা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বাল্য বিবাহর আইন লংঘন করে ষষ্ট শ্রেনীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীর বিয়ে পরানোর দায়ে বিবাহ রেজিষ্টার (কাজী) মাওলানা জালাল উদ্দিনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বরিশালের গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে। আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামের বাসিন্দা সেকান্দার দালালের কন্যা ও খাঞ্জাপুর পাঙ্গাশিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ট শ্রেনীর ছাত্রী নারগিস আক্তারের (১৩) সাথে একই গ্রামের মোঃ কবির হাওলাদারের পুত্র মোকসেদ হাওলাদারের (২৩) সোমবার রাতে বিয়ে সম্পন্ন হয়। বার্থী ইউনিয়নের বিবাহ রেজিষ্টার ও নাঠে রিজিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মাওলানা মোঃ জালাল উদ্দিন বিবাহ নিবন্ধন করে। সরকারি আইন লংঘন করে বিবাহ রেজিষ্টার আর্থিক প্রলোভনে পরে শিশু কন্যার বিয়ে পরানোর ঘটনায় স্কুল শিক্ষক ও জনপ্রতিনিধিদের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি স্থানীয়রা মঙ্গলবার গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরীকে অবহিত করেন। ম্যাজিষ্ট্রেট জালাল উদ্দিনকে তার আদালতে তলব করেন। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদে সে (জালাল) আইন লংঘন করে বিবাহ নিবন্ধন করার কথা স্বীকার করে আদালতে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। অভিযোগ স্বীকার করায় আদালত মাওলানা জালাল উদ্দিনকে অর্থ দন্ডে দন্ডিত করে এক হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের রায় ঘোষনা করেন। এছাড়াও তার বিবাহ নিবন্ধন বাতিল করার নির্দেশ দেন। কনে নারগিস আক্তার জানান, তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে অভিভাবকগন তাকে বিয়েতে বাধ্য করেছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »