আর্কাইভ

বরিশালের রাস্তায় নামছে ৫৩ ফুট দৈর্ঘ্যরে আর্টিকুলেটেড বাস

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ যাত্রীসেবার মানোন্নয়ন ও গণপরিবহন সঙ্কট দূর করতে ২৬ মার্চ মঙ্গলবার বরিশালের রাস্তায় নামছে ৫৩ ফুট দৈর্ঘ্যরে দুটি আর্টিকুলেটেড (জোড়া লাগানো দুই বগিবিশিষ্ট) বাস। ইতিমধ্যে আর্টিকুলেটেড বাস দুটি ঢাকা থেকে বরিশালের বিআরটিসি ডিপোতে এসে পৌছেছে। ২৬ মার্চ মঙ্গলবার উদ্ধোধনের পর আনুষ্ঠানিকভাবে বরিশালের রাস্তায় নামবে এ বাস দুটি।

বিআরটিসি বরিশাল ডিপোর ম্যানেজার আব্দুর রহিম জানান, ‘শনিবার (২৩ মার্চ) বাস দু’টি বরিশালের বিআরটিসি ডিপোতে এসে পৌছেছে। ৫৩ ফুট দৈর্ঘ্যরে দুই বগিবিশিষ্ট এ বাস দু’টির প্রতিটিতে ৫৮টি করে আসন রয়েছে। আগামী মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) বরিশাল লঞ্চঘাটে এ বাস চলাচলের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ‘এ বাস চলবে টাউন সার্ভিসে। তবে ঠিক কোন রুটে বাসগুলো চলবে তা এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। এর আগে, ২০ ফেব্র“য়ারী বুধবার রাজধানী ঢাকায় আর্টিকুলেটেড বাস সার্ভিসের উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আর্টিকুলেটেড বাস সার্ভিস চালু হয়। সেসময় যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়েদুল কাদের সাংবাদিকদের জানিয়েছেলেন, ঢাকা মহানগরে প্রাথমিকভাবে আর্টিকুলেটেড বাস সার্ভিস চালু হলেও তা পর্যায়ক্রমে  বরিশাল, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, সিলেট ও রংপুরে চালু হবে। পরবর্তীতে ১৭ মার্চ রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে বরিশাল জেলা ও মহানগর আ’লীগের আলোচনা সভায়ও যোগাযোগমন্ত্রী শীঘ্রই বরিশালে দু’টি আর্টিকুলেটেড বাস চালুর করার ঘোষনা দেন।

ভারতের অশোক লেল্যান্ড কোম্পানি এ বাসগুলোর নির্মাতা প্রতিষ্ঠান। ভারতীয় ঋণে কেনা এ বাস সার্ভিস নগরবাসীকে যাতায়াতে স্বস্তি ও দ্রুত সেবা দেবে বলে আশা করছে বিআরটিসি। প্রাথমিকভাবে ১০টি আর্টিকুলেটেড বাস ভারত থেকে আনা হয়েছে। আরো ২০টি বাস আগামী এপ্রিলে বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে বলে জানা গেছে। প্রাধমিকভাবে আনা ১০টি বাসের প্রতিটির দৈর্ঘ্য ছিল ৫৯ ফুট করে। কিন্তু বাংলাদেশের রাস্তায় ৫৯ ফুট দৈর্ঘ্যরে এ বাসগুলোর মোড় ঘুড়তে (টার্ন করাতে) সমস্যার কথা চিন্তা করে বাসগুলোর দৈর্ঘ্য কমিয়ে ১৬ মিটার (প্রায় সাড়ে ৫২ ফুট) করা হয়। অবশিষ্ট বাসগুলো ভারত থেকে দৈর্ঘ্য কমিয়েই আনা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »