আর্কাইভ

যৌতুকের দাবিতে বরিশালে স্ত্রীকে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে নির্যাতন

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বিদেশে যাওয়ার জন্য তিন লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে অমানুষিক নির্যাতন করেছে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজনে। মুর্মুর্ষ অবস্থায় ওই গৃহবধূকে গতকাল রবিবার ভোরে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার প্রত্যন্ত দক্ষিণ ধানডোবা গ্রামে।

অমানুষিক নির্যাতনের স্বীকার গৃহবধূর মা পৌর এলাকার টরকীরচর মহল্লার বাসিন্দা রুহুল আমীন ঘরামীর স্ত্রী পূর্নিমা বেগম অভিযোগ করেন, গত ৯ বছর পূর্বে তার কন্যা ঝিনুক আক্তারকে পাশ্ববর্তী দক্ষিণ ধানডোবা গ্রামের মজিবর হাওলাদারের পুত্র জসিমের সাথে সামাজিক ভাবে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের সময় বর পক্ষের দাবিকৃত যৌতুকের এক লক্ষ টাকা ও তিন ভরি স্বর্ণালংকার পরিশোধ করা হয়। পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন অযুহাতে আরো এক লক্ষ টাকা যৌতুক দেয়া হয়েছে।

হাসপাতালের বেডে শষ্যাশয়ী দু’সন্তানের জননী গৃহবধূ ঝিনুক বেগম (২৮) অভিযোগ করেন। অতিসম্প্রতি বিদেশে যাওয়ার জন্য তার স্বামী জসিম হাওলাদার ও তার পরিবারের লোকজনে তার (ঝিনুকের) বাবার কাছ থেকে তিন লক্ষ টাকা যৌতুক আনার জন্য চাপ প্রয়োগ করে। এতে অসম্মতি জানালে প্রায়ই তাকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো। শনিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে এল্যার্জির ঔষধের কথা বলে পাষন্ড স্বামী জসিম তাকে তিনটি ঘুমের ঔষধ খাওয়ায়। পরবর্তীতে স্বামী জসিম, ভাসুর লিটন ও শ্বশুড় মজিবর হাওলাদার পরিকল্পিত ভাবে তার ওপর নির্যাতন শুরু করে। এতে সে অজ্ঞান হয়ে পরে। রবিবার ভোরে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঝিনুকের বাবার বাড়ির লোকজনে জসিমদের বাড়ির উঠান (আঙ্গিনা) থেকে অচেতন অবস্থায় ঝিনুককে উদ্ধার করে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »