আর্কাইভ

বরিশালে সংখ্যালঘু পরিবারের ওপর হামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা ॥ বরিশাল নগরীর আগরপুর রোডের বাসিন্দা এক সংখ্যালঘু পরিবারের ওপর রবিবার দুপুরে হামলা চালিয়ে দু’জনকে আহত ও বসতবাড়ি ভাংচুর করেছে স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। হামলায় আহতদের হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আহত ও স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ১৯৬৮ সনে কোতয়ালী থানার জে.এল-৫০নং, বগুড়া আলেকান্দা মৌজায় বিভিন্ন দাগ ও খতিয়ানের সাড়ে ২৫ শতক জমি যামিনী কান্ত ও অবনী কান্তর কাছ থেকে দলিল মূলে ক্রয় করে বসবাস করে আসছেন মিহির লাল দত্ত। তার (মিহির দত্তের) মৃত্যুর পর ওয়ারীশগন ওই জমিতে বসবাস করে আসছেন। জানা গেছে, ১৯৭৬ সনে এ্যাডভোকেট মিহির দত্ত জেলা জজ কোর্টের অস্থায়ী পিয়ন জারফান উদ্দিনকে মানবিক কারনে বসবাসের জন্য তার জমির ওপর বসতঘর নির্মান করে দেন। পরর্বতীতে জাফরানের মৃত্যুর পর তার পুত্র শাহ্ আলম একটি ভুয়া শোলে ডিগ্রি করে ১৮ শতক জমির মালিকানা দাবি করে। এ নিয়ে আদালতে মামলা দায়েরের পর ভূয়া ডিগ্রিটি প্রমানিত হয়। এতে শাহ্ আলম দিশেহারা হয়ে পরেন। রবিবার দুপুরে মিহির লাল দত্তের ওয়ারিশরা তাদের সম্পত্তির ওপর নির্মানাধীন বসতঘর মেরামতের জন্য গেলে শাহ্ আলম ও তার ভাড়াটিয়া লোকজনে পরিকল্পিত ভাবে স্বর্গীয় মিহির দত্তের ওয়ারীশদের ওপর হামলা চালিয়ে আহত করে তাদের বসত ঘর ভাংচুর করে। হামলায় দেবরাজ দত্ত ডোনা ও তনু দত্ত গুরুতর আহত হয়। খবর পেয়ে কোতয়ালী মডেল থানার এসআই কবির হোসেন ও এস.আই চিন্ময় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »