আর্কাইভ

হাসপাতালে ভর্তি ছাত্রকে ফের কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোর্টার ॥  আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জেলা মৎস্যজীবি দলের সভাপতির পুত্র ও তার সহযোগীদের হামলায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কলেজ ছাত্রের ওপর দ্বিতীয় দফা হামলা চালিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করা হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় আহত কলেজ ছাত্রকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে পটুয়াখালী হাসপাতালে।

আহত ও তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালী জেলা মৎস্যজীবি দলের সভাপতি আবু মোল্লার পুত্র ফরহাদ হোসেন ও তার সহযোগীরা বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে পটুয়াখালী হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে প্রবেশ করে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পটুয়াখালী ইসহাক মডেল কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র ও কলেজ রোড এলাকার বাসিন্দা মোঃ বাবুল মিয়ার পুত্র শহিদুল ইসলামকে উপর্যুপুরি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে বীরদর্পে স্থান ত্যাগ করে। এ সময় পুরো হাসপাতালে আতংক ছড়িয়ে পরে। পরবর্তীতে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ওইদিন রাতেই মুর্মুর্ষ অবস্থায় শহিদুলকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহত কলেজ ছাত্রের পরিবারের অভিযোগ, জেলা মৎস্যজীবি দলের সভাপতি আবু মোল্লার পুত্র ফরহাদ ও তার সহযোগীরা এ হামলা চালিয়েছে। এরপূর্বে গত ১৭ এপ্রিল দুপুরে অভিযুক্ত ফরহাদ ও তার সহযোগীরা এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে শহিদুলকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করলে তাকে পটুয়াখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পটুয়াখালী সদর থানার ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় তাৎক্ষনিক থানা পুলিশ শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি দেশীয় ধারালো রামদাসহ মনির হাওলাদার, জহিরুল ইসলাম বুলবুল, মেহেদি হাসান ও জাকির হোসেন নামের চার যুবককে আটক করেছে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »