আর্কাইভ

সিটি নির্বাচন : বরিশালের নির্বাচনী মাঠে গৌরনদীর জনপ্রতিনিধি

প্রেমানন্দ ঘরামী, বরিশাল থেকে ফিরে ॥  বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদপ্রার্থী হিরণের পক্ষে আজ বুধবার গণসংযোগসহ ভোট প্রার্থনা করেছেন বরিশালের একমাত্র ডিজিটাল ইউপি চেয়ারম্যানখ্যাত গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের আহবায়ক সৈকত গুহ পিকলু।

তিনি পরিষদের সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে হিরণের টেলিভিশন মার্কার সমর্থনে ভোট প্রার্থণা করেন। একইদিন গৌরনদী উপজেলা আ’লীগ নেতা রাজু আহম্মেদ হারুনের নেতৃত্বে টেলিভিশনের পক্ষে গণসংযোগ করা হয়।

১৮ দল সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী আহসান হাবিব কামালের আনারস মার্কার সমর্থনে গণসংযোগ করেন বরিশাল জেলা উত্তর যুবদলের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা বদিউজ্জামান মিন্টুর নেতৃত্বে দলীয় নেতা-কর্মীরা।

হিরণের ইশতেহারে ব্যাপক সাড়া

বিসিসি’র নির্বাচনের ১৪দল সমর্থিত সম্মিলিত নাগরিক কমিটির মেয়র পদপ্রার্থী আলহাজ্ব শওকত হোসেন হিরণের ২৩ দফা নির্বাচনী ইশতেহারের মধ্যে উল্লেযোগ্য নগরীর যানজট নিরসনে উড়াল সেতু (ফ্লাইওভার) নির্মান, সারাদেশের সাথে বরিশালের রেল যোগাযোগ নিশ্চিত ও ভোলার গ্যাস পাইপ লাইনের মাধ্যমে বরিশালে আনার বিষয়টি নিয়ে সাধারন ভোটারদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পরেছে। আজ বুধবার সকাল থেকে বিভিন্ন দৈনিকে ইশতেহারের বিষয়টি জানতে পেরে সাধারন ভোটাররা উৎসবে ফেঁটে পরেন। দিনভর চায়ের চুমুকের উষ্ণতায় এক অপরকে আঞ্চলিক ভাষায় প্রশ্ন ছুঁড়ে বলছেন, কি বুঝলেন ভাই এইয়া কিন্তু হিরণ ভাই ছাড়া আর কেউ পারবো না।

 

প্রচারণায় ক্লান্ত মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা

সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত তিনজন মেয়র পদপ্রার্থী, ৩০টি ওয়ার্ডের ১১৫জন সাধারন ও ১০টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডের ৪৫জন কাউন্সিলর প্রার্থীরা ছুটে চলছেন ভোটারদের বাড়ি বাড়ি। তবুও সকল ভোটারের সাথে এখনো দেখা মেলেনি প্রার্থীদের। অধিকাংশ ভোটাররা মেয়র অথবা কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থক হয়ে নিজেরাই ভোট চাইতে ছুটছেন অন্যত্র। অনেক বাসাবাড়িতে ঝুলছে তালা। কলকারখানায় যেসব শ্রমিক কাজ করে রাতে বাসায় ফেরেন তারা নির্বাচনী উৎসবে নেই। তাদের অনেকের সাথেই এখন পর্যন্ত কোন মেয়র কিংবা কাউন্সিলর প্রার্থীদের দেখা হয়নি। বাসাবাড়িতে গিয়ে ভোটারদের না পেয়ে প্রার্থীরা এখন হাটে-ঘাটে, বাজারে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত ও স্কুল-কলেজগুলোকেই গণসংযোগের স্থান হিসেবে বেঁছে নিয়েছেন।

ইসলামী আন্দোলন কাউকে সমর্থন দেয়নি

আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিভিন্ন মেয়র প্রার্থীকে ইসলামী আন্দোলন সমর্থন দিয়েছে বলে পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদটি সঠিক নয়। আজ বুধবার সংগঠনের মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কামালের পক্ষে স্মারকলিপি পেশ

নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন, প্রচার কর্মীদের বাঁধা প্রদান, পুলিশি হয়রানীর প্রতিকার চেয়ে বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী নাগরিক পরিষদের প্রার্থী আহসান হাবিব কামালের পক্ষ থেকে বুধবার দুপুরে রিটানিং অফিসারের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয়  বিএনপির ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা আল নোমান কামালের পক্ষে স্মারকলিপি পেশ করেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে কেন্দ্রীয় বিএনপির স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, সহ-সভাপতি আলতাফ হোসেন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবর রহমান সরোয়ার-এমপি, সুুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »