আর্কাইভ

দিনমজুরকে হয়রানির অভিযোগ ॥ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা

শিপন ফকিরের একমাত্র সম্বল ২০ শতক সম্পত্তির ওপর দীর্ঘদিন থেকে লোলুপ দৃষ্টি পরে একই গ্রামের প্রভাবশালী কবির আকনের। প্রভাবশালী ওইব্যক্তি ও তার সহযোগীরা একাধিকবার চেষ্ঠা করেও দিনমজুরের ওই সম্পত্তি ক্রয় করতে ব্যর্থ হয়ে তাকে (শিপনকে) নানাভাবে হয়রানী করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আধুনা গ্রামের মকবুল ফকিরের পালিত পুত্র দিনমজুর শিপন ফকির গতকাল শুক্রবার গৌরনদী প্রেসক্লাবে হাজির হয়ে অভিযোগ করেন, প্রভাবশালী কবির আকন তার একমাত্র ২০ শতক সম্পত্তি ক্রয় করতে ব্যর্থ হয়ে তাকে নানাধরনের ভয়ভীতিসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়। তাদের অব্যাহত হুমকির মুখে স্ত্রী-পরিজন নিয়ে তিনি দীর্ঘ সাতবছর বাড়ি-ঘর ছেড়ে মুন্সীগঞ্জে ছিলেন। সেখানে তিনি রিকসা চালিয়ে পরিবার নিয়ে কোনমতে জীবন যাপন করেছেন। গত তিনবছর পূর্বে স্ব-পরিবারে তিনি বাড়িতে আসেন। এরই মধ্যে পূর্ণরায় প্রভাবশালী কবির আকন জমি বিক্রি করার জন্য তাকে বিভিন্ন রকম চাপ প্রয়োগ করেন। তিনি আরো অভিযোগ করেন, তার বাড়ির পার্শ্বের খালে তিনি গড়া দিয়ে মাছ স্বীকার করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ৬ অক্টোবর রাতে হঠাত করে তার গড়ার থেকে মাছ তোলার সময় তিনি ডাকচিৎকার শুরু করে কবির আকনকে ঝাপটে ধরেন। এসময় তাদের দু’জনের মধ্যে হাতহাতির ঘটনা ঘটে।

এক পর্যায়ে কবির আকন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। রাতের ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে কবির আকন তার ওপর হামলার অভিযোগ এনে অসহায় দিনমজুর শিপন ফকির ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে গৌরনদী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। থানা পুলিশ বিষয়টি তদন্তের জন্য সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রকে নির্দেশ দেন। তদন্ত কেন্দ্রের এস.আই আলাউদ্দিন অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিন তদন্ত করেন। পূর্ণরায় প্রভাবশালী কবির উদ্দিন দিনমজুর শিপন ফকিরের বিরুদ্ধে গৌরনদী থানায় পূর্ণরায় আরো একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। অসহায় দিনমজুর শিপন ফকির সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রভাবশালীদের হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রসাশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »