আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ার সেই নাটকীয় বিয়ে ॥ অধিকার ফিরে পেতে অবশেষে মামলা দায়ের

ঘটনায় স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন আদালতে মামলা দায়ের করেছেন অসহায় এক কিশোরী কন্যা। মামলায় ওই কিশোরী কন্যা নায্য বিচার পাবে কিনা এনিয়েও শংকা বিরাজ করছে। মামলা দায়েরের খবর শুনে মামলা উত্তোলনের জন্য প্রভাবশালী একটি মহল কিশোরী ও তার পরিবারকে নানা ধরনের ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে বলে কিশোরী কন্যা স্বরস্বতী ভক্ত অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানা গেছে, ২০০১ সালে ওই গ্রামের দিনমজুর লক্ষীকান্ত ভক্তের কিশোরী কন্যা স্বরস্বতী ভক্তকে (১২) জোড়পূর্বক স্থানীয় একটি পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষন করে একই এলাকার বিএনপি ক্যাডার শান্তি রঞ্জন মধু। তৎকালীন সময় এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পরলে ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে মামলা থেকে রেহাই পেতে উপজেলার প্রভাবশালী বিএনপি নেতারা শান্তি রঞ্জনের সাথে স্বরস্বতীর নাটকীয় ভাবে বিয়ে দেন। বিয়ের পর থেকে শান্তি রঞ্জন ও তার পরিবারের সদস্যরা স্বরস্বতীর ওপর চালায় অমানুষিক নির্যাতন। এক পর্যায়ে স্বরস্বতীর গর্ভে একটি পুত্র সন্তান জন্মগ্রহন করলেও কিছুদিন পর ওই বাচ্চা সন্তানটি মারা যায়। কিছুদিন পর শারিরিক নির্যাতনের এক পর্যায়ে স্বরস্বতিকে তার বাবার বাড়িতে তাড়িয়ে দেয়া হয়। সেই থেকে অদ্যবর্ধি স্বরস্বতি তার পিত্রালয়ে অবস্থান করছে। অবশেষে উপায়অন্তুর না পেয়ে স্বরস্বতি ভক্ত স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে অতিসম্প্রতি বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা দায়ের করেন। স্বামীর অধিকার ফিরে পেতে অসহায় স্বরস্বতী প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বিভিন্ন নারী সংগঠন ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »