বরিশাল

যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

দুই লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ শারমিন আক্তার দোলনকে (১৯) হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ তার বাবার বাড়ির পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলেছে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার বাকাল গ্রামে।

গৌরনদী উপজেলার চাঁদশী ইউনিয়নের পশ্চিম শাওড়া গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেন বেপারী জানান, গত নয় মাস পূর্বে তার কন্যা শারমিন আক্তার দোলনকে পাশ্ববর্তী আগৈলঝাড়ার বাকাল গ্রামের মৃত এস্কেন্দার আলী বাদশার পুত্র টিপু ইসলাম ফরহাদের সাথে সামাজিক ভাবে বিয়ে দেয়া হয়। ওইসময় বর পক্ষের দাবি অনুযায়ী যৌতুকের নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার দেয়া সত্বেও বিয়ের পর ফরহাদ আরো দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে বাঁধ সাধায় প্রায়ই দোলনকে শারিরিক নির্যাতন করা হতো।

দেলোয়ার হোসেন বেপারী আরো অভিযোগ করেন, বুধবার দুপুরে নির্যাতনের একপর্যায়ে দোলনকে তার স্বামী ও পরিবারের লোকজনে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোদ্ধ করে হত্যা করে লাশ ঝুঁলিয়ে রেখে আত্মহত্যার কথা রটিয়ে দেয়। খবর পেয়ে ওইদিন বিকেলে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত্রের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।

এ ঘটনার পর থেকে নিহত গৃহবধূ দোলনের স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যরা আত্মগোপন করেছেন।
খবর : বেলাল হোসেন

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button