আর্কাইভ

৫টি পৌরসভায় নির্বাচনের হাওয়া-আওয়ামীলীগ-বিএনপির একাধিক প্রার্থী

গতকাল বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের ঘোষনা অনুযায়ী আগামি ১৩ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে মেয়াদয়োর্ত্তীন বরিশালের ৫টি পৌরসভার নির্বাচন।  
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরিশাল জেলার গৌরনদী, মুলাদী, মেহেন্দীগঞ্জ, বানারীপাড়া ও বাকেরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থী হতে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ ও বিএনপির একাধিক প্রার্থী দীর্ঘদিন থেকে মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার তফশিল ঘোষনার পর পরই প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন। কে হাসবেন শেষ হাসি সে হিসেব নিকেশ হবে আগামি ১৩ জানুয়ারি। তার পরেও বিজয়ের আশায় প্রার্থীরা ঘুরে বেড়াচ্ছেন পাড়া ও মহল্লায়।

তবে গত ২৪ নবেম্বর নির্বাচন কমিশনার বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) এম.সাখাওয়াত হোসেন গৌরনদী উপজেলা সার্ভার ষ্টেশন পরিদর্শন শেষে আগামী ইউনিয়ন ও পৌরসভার নির্বাচনের বিধিমালা নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, সরকারী কর্মকর্তা, সুধী ও সাংবাদিকদের সাথে মতিবিনিময় সভায় বলেছিলেন, ঠেকবাজির নির্বাচন আর হচ্ছে না। তিনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনকে যার প্রমান স্বরূপ উপস্থাপন করেন। তিনি আরো বলেছিলেন, জনগনের ভোটের মাধ্যমেই প্রার্থীদের নির্বাচিত হতে হবে। তার এ বক্তব্যের পর অধিকাংশ প্রার্থীরাই বিজয়ের আশায় বুক বেঁধেছেন। অধিকাংশ প্রার্থীরা, সরকারি দলের সম্পূর্ণ প্রভাব মুক্ত নির্বাচনের জন্য কমিশনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


সূত্রমতে, গৌরনদী পৌরসভার মেয়র প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন, বৃহত্তর গৌরনদী থানা (বর্তমান গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলা) আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মরহুম ইদ্রিস মিয়ার কনিষ্ট পুত্র উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ হারিছুর রহমান হারিছ, সরকারী গৌরনদী কলেজের সাবেক জিএস, উপজেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারন সম্পাদক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মোঃ আলাউদ্দিন ভূইয়া, বর্তমান পৌর মেয়র ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম নুর আলম হাওলাদার, বরিশাল জেলা উত্তর বিএনপির সহসভাপতি আ.ফ.ম রশিদ দুলাল, পৌর বিএনপির সভাপতি এস.এম মনির-উজ জামান মনির, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক সফিকুর রহমান শরীফ স্বপন। মুলাদী পৌরসভার বর্তমান ভারপ্রাপ্ত মেয়র ও বিএনপি নেতা মোঃ এনামুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এডভোকেট আব্দুল মালেক রাঢ়ী, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক তরিকুল হাসান মিঠু, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক আহবায়ক হারুন-অর রশিদ খান, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন কবিরাজ।

বানারীপাড়া পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম সালেহ মঞ্জু মোল্লা, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক এডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল, সদস্য এ.কে.এম ইউসুব আলী, জাসদের জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক আনিসুজ্জামান আনিচ, আওয়ামীলীগ নেতা হারুন-অর রশিদ, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক নেতা ও সাংবাদিক সোহেল সানী, উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক গোলাম মাহবুব মাষ্টার, সহসভাপতি এডভোকেট আব্দুস সাত্তার বাবলু। বাকেরগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেত্রী নাসরিন জাহান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লোকমান হোসেন ডাকুয়া, পৌর আওয়ামীলীগের আহবায়ক ও বর্তমান পৌর কাউন্সিলর মশিউর রহমান জমাদ্দার, সাবেক পৌর মেয়র মাহবুব আলম, আওয়ামীলীগ নেতা নাসির উদ্দিন মাঝি, পৌর বিএনপির সভাপতি মতিউর রহমান মোল্লা, বিএনপি নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোফাজ্জেল হোসেন জমাদ্দার, পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও বর্তমান পৌর কাউন্সিলর মোফাজ্জেল হোসেন, জাতীয় পার্টির নেতা মিজানুর রহমান, মেহেন্দীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন খান, আওয়ামীলীগ নেতা ও সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নিজামউদ্দিন আহম্মেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহসম্পাদক খোরশেদ আলম ভুলু, পৌর বিএনপির সভাপতি সাহাবুদ্দিন হিমু, উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম লাবুর নাম শোনা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »