আর্কাইভ

২০টি ইরি-বোরো ব্লক চালু কৃষকদের মাঝে আনন্দ

কর্তৃক একমাত্র খালে বিশাল বাঁধ দিয়ে ইরি-বোরো ব্লকে পানি নিতে বাঁধা দেয়। এতে বন্ধ হয়ে যায় বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বড়দুলালী, বাঘমারা, পশ্চিম বার্থী এলাকার ২০টি ইরি-বোরো ব্লক। খবর পেয়ে গতকাল মঙ্গলবার সকালে ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান গৌরনদী থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম-পিপিএম। এসময় ওসির উপস্থিতিতে খালের বাঁধ কেটে পানি নিস্কাসনের ব্যবস্থা করা হয়। ওসির এ মহতি উদ্যোগে ওইসব ব্লকের হাজার-হাজার চাষীদের মধ্যে এখন আনন্দের বন্যা বইছে। 

জানা গেছে, প্রতিবছরই সেচ পাম্পের মাধ্যমে পালরদী নদীর সংযোগস্থল বড়দুলালী গ্রামের বসির খানের বাড়ির সম্মুখের খাল দিয়ে বার্থী ইউনিয়নের বাঘমারা, বড়দুলালী, পশ্চিম বার্থী এলাকার ২০টি ইরি-বোরো ব্লকের পানি আনা হতো। চলতি ইরি-বোরো মৌসুম শুরুর প্রাক্কালে (গত দশদিন পূর্বে) প্রভাবশালী বসির খান, মাজেদ খান ও তাদের লোকজনে তুচ্ছ ঘটনার জেরধরে পানি নিতে বাঁধা দিয়ে খালের মধ্যে বিশাল একটি বাঁধ নির্মান করেন। এতে ইরি মৌসুম শুরু হওয়ার পরেও অনিশ্চিয়তা মুখে পরে ওই ২০টি ব্লকের কয়েক হাজার চাষী। অবশেষে গতকাল মঙ্গলবার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুঁটে যান ওসি নুরুল ইসলাম। উল্লেখ্য, গৌরনদী উপজেলার চরদিয়াশুর ও চররমজানপুর গ্রামের দুইটি ইরি-বোরো ব্লক বন্ধ করে দিয়েছিলো পাশ্ববর্তী কালকিনি উপজেলার চরপালরদী গ্রামের লাঠিয়াল বাহিনীরা। এ খবর পেয়ে গত সোমবার (১৭ জানুয়ারি) ওই এলাকায় উপস্থিত থেকে বন্ধ হওয়া ব্লক দুটি চালু করেছেন ওসি নুরুল ইসলাম।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »