আর্কাইভ

আলীকদমে প্রকৃত মুরুং অধিবাসিরা সরকারী পরিসেবা থেকে বঞ্চিত

তালিকায় নাম অর্ন্তভূক্তি করে সরকারী বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা ভোগ করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। পোয়ামূহুরীর মেনতম মুরুং কার্বারীর একটি লিখিত অভিযোগে এ তথ্য জানা গেছে। প্রকৃত দেশীয় নাগরিক হয়েও অনেকে ভিজিডি কর্মসুচীসহ সরকারী নানা প্রকল্পের সুবিধা থেকেও বাদ প্রকৃত নাগরিকরা বাদ পড়ছে বলে অভিযোগে দাবী করা হয়।

অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার দুর্গম মাতাামূহুরী এলাকায় চংখই কার্বারী পাড়ায় ৩৫ পরিবারের মধ্যে ২৪ পরিবার, বড় আগলা নিয়াডুই কার্বারী পাড়ায় ২৮ পরিবারে ২৬ পরিবার, মরনী মেংকক কার্বারী পাড়ায় ১৭ পরিবারে ১৫ পরিবার ও সিন্দু পাড়ায় ৩২ পরিবারে ২০ পরিবারই বর্মী নাগরিক। বর্মী নাগরিক হলেও তারা ওই এলাকার জনপ্রতিনিধিদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগীতায় ছবিযুক্ত ভোটার তালিকায় অর্ন্তভূক্তি হয়েছেন। অপর দিকে, ওই এলাকায় বসবাসকারী প্রকৃত স্থায়ী মুরুংরা কোন প্রকার সরকারী সুযোগ সুবিধা পান না বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা ও ভিজিডি সুযোগ সুবিধা থেকে অনুপ্রবেশকারী বর্মী নাগরিকদের বাতিলের দাবী জানিয়ে প্রশাসনিক বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযাগ করেছেন মেনতম মুরুং কার্বারী।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকার ওয়ার্ড মেম্বার রুহুল আমিন বলেন, মুরুংদের নৃ-তাত্ত্বিক কারণে কে রোহিঙ্গা কে স্থায়ী তা আমার পক্ষে চেনা সম্ভব নয়। সনাক্তকারী ও তৎসময়ে সুপাভাইজারগণই ভাল জানবেন। তবে যোগাযোগের দূরত্বের কারণে অনেকে সরকারী সুযোগ সুবিধা পান না বলে দাবী করেন তিনি।

আরও পড়ুন

Back to top button