আর্কাইভ

যৌতুকের দাবিতে নববধূকে শারিরিক নির্যাতন

তার বাবার বাড়িতে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা পরিশোধ করা না হলে নববধূ কল্পনা বেগমকে তালাক দেয়ার হুমকি দিয়েছে যৌতুকলোভী পাষন্ড স্বামী ও তার পরিবারের লোকজনে। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার জবসেন গ্রামে।

নববধূ কল্পনা বেগমের পিতা বাশাইল গ্রামের সেলিম সিকদারের অভিযোগ করে বলেন, গত দু’মাসপূর্বে পাশ্ববর্তী জবসেন গ্রামের হাকিম পাইকের পুত্র রইচ উদ্দিন পাইকের সাথে আমার কন্যা কল্পনাকে বিয়ে দেই। বিয়ের সময় বর পক্ষের দাবিকৃত যৌতুকের ৫০ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকারসহ অন্যান্য মালামাল পরিশোধ করা হয়। বিয়ের একমাস পরেই পুর্নরায় রইচ উদ্দিন ও তার পরিবারের লোকজনে একলক্ষ টাকা যৌতুক আনার জন্য কল্পনাকে চাপ প্রয়োগ করে। এতে নববধূ কল্পনা অস্বীকৃতি জানালে একাধিকবার তাকে শারিরিক নির্যাতন করা হয়। গত দু’দিন পূর্বে পূনঃরায় নববধূ কল্পনা বেগমকে মারধর করে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়া হয়। এসময় যৌতুকলোভী রইচ উদ্দিন ও তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা কল্পনাকে হুমকি দিয়ে বলেছে এক সপ্তাহের মধ্যে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা পরিশোধ করা না হলে তাকে (কল্পনাকে) তালাক দেয়া হবে। অসহায় কল্পনার পিতা এ ঘটনায় জবসেন গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তিদের জানালে রইচ উদ্দিন আরো ক্ষিপ্ত হয়। উপায়অন্তুর না পেয়ে অবশেষে গতকাল বুধবার সকালে সেলিম সিকদার বাদি হয়ে আগৈলঝাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button