আর্কাইভ

মসজিদে মুসল্লীদের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত

গতকাল শুক্রবার বরিশালের গৌরনদী উপজেলার উত্তর কমলাপুর জামে মসজিদের মধ্যে বসে দু’গ্রুপ মুসুল্লীদের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে হামলা ও পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। এ নিয়ে ওই এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত সূত্রে জানা গেছে, কমলাপুর গ্রামের তাবলীগ জামাতের সদস্য ও প্রভাবশালী জামায়াত নেতা ফজলুল হক সরদার উত্তর কমলাপুর জামে মসজিদের ইমাম হিসেবে সম্প্রতি মাওলানা সোবহান শেখকে নিয়োগ করেন। ওই ইমাম মসজিদের মাইকে আযান দেয়া জায়েজ নয় বলে কয়েকদিন ধরে ফতোয়া দিয়ে আসছেন। এ নিয়ে গতকাল শুক্রবার জুম্মার নামাজের খুতবা পাঠের সময় প্রথম দফায় দু’গ্রুপ মুসুল্লীদের সাথে বাকবিতন্ডা বাঁধে। এর জের ধরে বাদ মাগরিব মসজিদের মুসল্লী ও আট নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইসাহাক আলী মেলকার এবং অপর মুসল্লী জামায়াত নেতা ফজলুল হক সরদারের মধ্যে পূর্ণরায় বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

একপর্যায়ে ফজলুল হক সরদারের সহযোগীরা হামলা চালিয়ে ইসাহাক আলীকে (৫৫) পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ খবর পেয়ে ইসাহাকের সমর্থকেরা লাঠিসোটা নিয়ে মসজিদ প্রাঙ্গনে ফজলুল হক গ্র“পের ওপর পাল্টা হামলা চালায়। উভয় গ্র“পের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার একপর্যায়ে সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষে সাঈদ মেলকার (৩২), জাহিদ হোসেন (২৮), সোহেল মেলকার (২৩), ফজলুল হক সরদার (৬০), খোকন সরদার (২৭), শিপন (২৫) সহ উভয় পক্ষের ১০ জন আহত হয়।

গুরুতর আহতদের রাত সাড়ে সাতটায় গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে গৌরনদী থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে গৌরনদী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক এস.আই ওয়াসিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনায় এখনো থানায় কোন পক্ষ অভিযোগ দায়ের করেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন...
Close
Back to top button
Translate »