আর্কাইভ

হাসানাত আব্দুল্লাহর নির্বাচনী মাইক্রোবাসে অগ্নিসংযোগ

আদালত ও এজাহারে প্রকাশ, অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর নির্বাচনী প্রচারনা শেষে গত ২০০১ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে তার নির্বাচনী কাজে ব্যবহৃত মাইক্রোবাস গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া বাজার সংলগ্নস্থানে পৌঁছলে তৎকালীন এ আসনের চারদলীয় জোটের প্রার্থী জহির উদ্দিন স্বপনের ক্যাডার বাহিনী মাইক্রোবাসটিকে লক্ষ করে বোমা হামলা চালিয়ে গাড়িটিতে অগ্নিসংযোগ করে সম্পূর্ণ ভস্মিভূত করে। এ ঘটনার ৯ বছর পর গত ১ জানুয়ারি রাতে আওয়ামীলীগ সমর্থক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম.এ বাশার ডাবলু বাদি হয়ে গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া উপজেলার বিএনপির ৮২ জন নেতা-কর্মী ও ক্যাডারের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরো ৫০ জনকে আসামি করে গৌরনদী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে বিএনপির সাতজন নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করে।
মামলা দায়েরের পর গত ১১ জানুয়ারি বিএনপির ৫৫ জন নেতা-কর্মী হাইকোট থেকে এক মাসের আগাম জামিন লাভ করেন। গতকাল ওইসব নেতা-কর্মীরা বরিশাল চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে স্থায়ী জামিনের আবেদন করেন। আবেদনের ভিত্তিতে ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আলতাফ হোসেন বিএনপির ৫৫ জন নেতা-কর্মীর স্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন। আসামি পক্ষের আইনজীবি ছিলেন এডভোকেট মাসুদ খান ও এডভোকেট সাইয়েদ উদ্দিন মধু।
উল্লেখ্য, মামলার ৭ জন আসামি কারাগারে, ৫ জন আসামি প্রবাসে ও অন্যান্য আসামিরা পলাতক রয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »