আর্কাইভ

৫ লাখ টাকার চাঁদার দাবীতে লীগ নেতার বাড়ীতে হামলা

উপজেলার রানাপাশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল হামিদ মেল্লার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা । এসময় হামিদ মোল্লা ও তার দুই ছেলেকে কুপিয়ে মারাত্ত্বক জখম করেছে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক জনতা সন্ত্রাসীদের ঐ ঘরের মধ্যে ঘিরে ফেলে এবং ৩ জনকে আটক করলেও ৭/৮ জন পালিয়ে জেতে ক্ষম হয় । পরে সন্ত্রাসীদের থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

এদিকে এঘটনায় গতকাল ২৭ জুন আওয়ামী লীগ নেতা হামিদ মোল্লা বাদী হয়ে নলছিঠি থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৪। পুলিশ আটক কৃত ৩ সন্ত্রাসী আরিফ হোসেন(৩০), জুয়েল (২৮), সোহাগ হাওলাদার (২১) কে আদালতে প্রেরন করলে আদালত তাদের কে জেল হাজতে প্রেরন করেছে ।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, নলছিটি উপজেলার রানাপাশার ভেরন বাড়ীয়ার আওয়ামীলীগ নেতা হামেদ মোল্লার কাছে গত এক মাস যাবত ঝালকাঠি শহরের স্টেশন রোড এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী আরিফ হোসেন ৫ লাখ টাকা চাদা দাবী করে আসছিল। গত ২৬ জুন রবিবার দুপুরে আরিফ তার সহযোগীদের নিয়ে হামেদ মোল্লার বাড়ীতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, লুটপাট ও হামেদ মোল্লা, তার ছেলে মঞ্জুর ও আলি আজগরসহ ৩ জনকে কুপিয়ে জখম করে। এক পর্যায়ে বিষয়টি এলাকাবাসী টের পেলে তারা ৩ সন্ত্রাসীকে হামেদ মোল্লার ঘরের মধ্যে আটকে ফেলে পুলিশে সোপর্দ করে। বাকি সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে হামেদ মোল্লা ঐ দিনই থানায় একটি এজাহার দাখিল করলে গতকাল সোমবার সকালে নলছিটি থানা মামলাটি এজাহার হিসেবে গন্য করে।

এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা হামিদ মোল্লার বাড়ীতে চাদার দাবীতে হামলা করীদের দিমনে কঠোর ভাবে ব্যাবস্থানিতে প্রশাসন কে নির্দেশ দিয়েছেন কেন্দ্রিয় উপদেষ্টা সাবেক মন্ত্রী স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু।

উল্লেখ্য, ঝালকাঠি জেলার দুধর্ষ সন্ত্রাসী আরিফ হোসেন দীর্ঘ দিন যাবত চাঁদাবাজী, ছিনতাইসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে আসছে। প্রভাবশালী কোন এক মহলের ছত্র ছায়ায় আরিফ ও তার বাহিনী বার বার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করেও পার পেয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »