গৌরনদী সংবাদ

বাংলার শেষ নবাবের কামান গৌরনদীতে

মো. আহছান উল্লাহঃ ১৭৫৭ সালে বাংলা ইংরেজদের দখলে চলে গেলেও জমিদার সৈয়দ ইমান উদ্দিন তিন বছর বরিশালের নলচিড়া অঞ্চলের স্বাধীনতা টিকিয়ে রেখেছিলেন। ইমান উদ্দিন বাংলার শেষ নবাব সিরাজউদ্দৌলার আত্মীয়। তার কাছে নবাবের পরাজিত সৈনিকদের বড় অংশ আশ্রয় নেয়। সে সময় যুদ্ধে ব্যবহৃত কামান পাওয়া গেছে। যা ইমান উদ্দিনের বংশধরের হেফাজতে রয়েছে।

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার ইতিহাস-ঐতিহ্য ঘেরা কাণ্ডপাশা গ্রামে বাংলা, বিহার, উড়িষ্যার শেষ স্বাধীন নবাব সিরাজউদ্দৌলার সৈনিকদের একটি কামানের সন্ধান পাওয়া গেছে। পাঁচ ফুট লম্বা, সাড়ে চার ইঞ্চি গোলাকার এবং ৫৭ কেজি ওজনের এ কামানটি বর্তমানে ওই গ্রামের ইমান উদ্দিনের বংশধর নিজাম মিঞার হেফাজতে আছে। কামানটি সংরক্ষণের অভাবে মরিচা পড়ে গেছে।

বৃহতি গৌরনদী ইতিহাস গ্রন্থের লেখক কবি সিকদার রেজাউল করিম জানান, ১৭৫৭ সালে নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে হত্যার পর পরাজিত সৈনিকদের একটি বড় অংশ সশস্ত্র অবস্থায় নবাবের আত্মীয় বরিশালের গৌরনদী উপজেলার নলচিড়ার জমিদার ইমান উদ্দিনের সরাইখাল দুর্গে অবস্থান নেয়।

আশ্চর্যের বিষয় হলো সারা বাংলা ইংরেজদের দখলে চলে গেলেও জমিদার সৈয়দ ইমান উদ্দিন তিন বছর এ অঞ্চলের স্বাধীনতা টিকিয়ে রেখেছিলেন। তার সঙ্গে যুদ্ধে বারবার ইংরেজ সৈন্যরা পরাজিত হয়েছিল। পরে ইংরেজ সৈন্যরা বিপুল পরিমাণ সৈন্য ও রণতরী নিয়ে শরিকল নদী দিয়ে আক্রমণ চালায়। প্রায় চার দিন যুদ্ধের পর ইমান উদ্দিনকে পরাজিত করে। পরে নিরুপায় হয়ে তিনি তার সরাইখাল দুর্গে অবস্থান নেন। সেখানে আক্রমণ চালিয়ে ইমান উদ্দিনকে বন্দি করে নিয়ে যায় ইংরেজ সৈন্যরা।
তিনি আরো জানান, ওই সময় ইমান উদ্দিনের সৈন্য ও জনগণকে দমন করার জন্য নলচিড়ায় থানা করা হয়।
ওই গ্রামের ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম, আদেল উদ্দিন ও সলেমান মোল্লাহ জানান, ইমান উদ্দিনের দুর্গের স্থান ও তাদের দিঘিতে সরকারিভাবে অনুসন্ধান করলে মূল্যবান প্রতœসম্পদের সন্ধান পাওয়া যেতে পারে।

কামানটির হেফাজতকারী ৮৫ বছরের বৃদ্ধ ও জমিদার ইমান উদ্দিনের বংশধর নিজাম মিঞা বলেন, ‘কবি রেজাউল ভাইয়ের তথ্য সঠিক। কয়েক বছর আগে দুর্বৃত্তরা কামানের কিছু অংশ ভেঙে নিয়ে যায়। বাকি অংশ আমাদের হেফাজতে রেখেছি।’
কামানটি সরকারের কাছে হস্তান্তর করবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, এ ব্যাপারে তিনি একা সিদ্ধান্ত দিতে পারবেন না।
নলচিড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান হাফিজ মৃধা বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। এখনো দেখিনি। তবে এ ব্যাপারে আমার কোনো সহযোগিতা প্রয়োজন হলে আমাকে জানাবেন।’

// সংবাদটি মানবকন্ঠে প্রকাশিত //

আরও সংবাদ...

Leave a Reply

Back to top button