আর্কাইভ

খুনীর বাড়িতে দাফন করা হলো রহিমকে – মটরসাইকেলের জন্যই দু’যুবককে হত্যা

এলাকায় একটি মটরসাইকেলের জন্য দু’বন্ধুকে ডেকে নিয়ে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। লাশের ময়না তদন্ত শেষে সোমবার রাতে রহিম হাওলাদারকে খুনির বাড়িতে এবং সুমন সরদারকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। রহিমের লাশ দাফন করার পর পরই বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসি প্রধান খুনি হাচান হাওলাদারের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করেছে।

স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাজিহার ইউনিয়নের চেঙ্গুটিয়া কাজির গ্রামের দিনমজুর আক্কেল সরদারের পুত্র সুমন সরদার (২২) ভাড়ায় মটরসাইকেল চালিয়ে (প্রটোকল চালক) আট সদস্যর পরিবারের ভরন পোষন জুগিয়ে আসছিল। নিহত সুমনের পিতা আক্কেল সরদার জানান, রবিবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে চেঙ্গুটিয়া বাজার থেকে কালকিনি যাওয়ার কথা বলে একই এলাকার কান্দিরপাড় গ্রামের হাচান হাওলাদার ও ইসমাইল হাওলাদার সুমনের মটরসাইকেল ভাড়া করে। এসময় সুমন তার বন্ধু ভ্যানচালক কান্দিরপাড় চেঙ্গুটিয়া গ্রামের নজরুল হাওলাদারের পুত্র রহিম হাওলাদারকে (১৭) সাথে নিয়ে যায়। কালকিনি থানা পুলিশ জানায়, থানার দর্শনা আশ্রামের সন্নিকটে উপর্যপুরি কুপিয়ে নির্মমভাবে সুমন ও রহিমকে হত্যা করে মটরসাইকেল নিয়ে যাওয়া হয়।

রাজিহার ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের  সদস্য হাচানের প্রতিবেশী ডবলু তালুকদার বলেন, মর্মান্তিক এ হত্যার ঘটনার এক সপ্তাহ পূর্বে কান্দিরপাড় গ্রামের কাতার প্রবাসী জলিল হাওলাদারের পুত্র খুনি হাচান মটরসাইকেল কিনে দেয়ার জন্য তার মা বিউটি বেগমের কাছে বায়না ধরে। মা মটরসাইকেল কিনে দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে (মাকে) মারধর করে বসত ঘর ভাংচুর করে হাচান। তিনি আরো বলেন, হাচান একজন মাদক সেবী ও সে  মটরসাইকেল পাওয়ার জন্য বেপরোয়া হয়ে ওঠে। রাজিহার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইলিয়াস তালুকদার বলেন, গত সোমবার তারাবির নামাজের পর নিহত সুমন ও রহিমের লাশ এলাকায় পৌঁছলে শোকের ছায়া নেমে আসে। নিহত রহিমের পিতা হতদরিদ্র নজরুল হাওলাদারের কোন জমাজমি না থাকায় এলাকাবাসির সিদ্বান্ত অনুযায়ী হত্যার মূল নায়ক হাচানের বাড়িতে রহিমের লাশ দাফন করা হয়। অপরদিকে একই সময় সুমনের লাশ তার পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়েছে। স্থানীয় আলাউদ্দিন তালুকদার, শামীম হোসেন  জানান, রহিমের লাশ দাফনের পর পরই এলাকাবাসি ক্ষিপ্ত হয়ে হাচানের বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। কালকিনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহীন মন্ডল বলেন, এ হত্যার ঘটনায় নিহত সুমনের বাবা আক্কেল সরদার বাদি হয়ে হাচান হাওলাদার ও ইসমাইল হাওলাদারের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জনকে আসামি করে সোমবার রাতে কালকিনি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

আরও পড়ুন

Back to top button