আর্কাইভ

প্রেম করে শ্রীঘরে……!

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ প্রেম করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকার সাথে আপত্তিকর অবস্থায় মেলামেশা করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক হয়েছে প্রেমিক যুগল। স্থানীয়দের চাঁপের মুখে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় প্রেমিক আরিফুল। উপায়অন্তুর না পেয়ে এলাকাবাসির আটক প্রেমিক যুগলকে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। আজ মঙ্গলবার সকালে কলেজ ছাত্রী প্রেমিকা রাজিয়া সুলতানা থানায় যৌন হয়রানির মামলা দায়ের করে। পরবর্তীতে বেরসিক পুলিশ প্রেমিক আরিফুলকে ওইদিন দুপুরে আদালতে সোর্পদ করেন। এ নিয়ে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালের গৌরনদীতে।

জানা গেছে, উপজেলার বাটাজোর এলাকা থেকে সোমবার বিকেলে আপত্তিকর অবস্থায় এলাকাবাসি এক প্রেমিক যুগলকে আটক করে। আটককৃত প্রেমিক আরিফুল ইসলামের (২২) বাড়ি পাশ্ববর্তী বাবুগঞ্জ উপজেলার চরউত্তর ভূতেরদিয়া গ্রামে। সে ওই গ্রামের খলিলুর রহমান মাষ্টারের পুত্র। প্রেমিকা কলেজ ছাত্রী রাজিয়া সুলতানার (১৮) বাড়ি পাশ্ববর্তী সিলনদিয়া গ্রামে। সে ওই গ্রামের আনোয়ার হোসেন চৌকিদারের কন্যা।

কলেজ ছাত্রী রাজিয়া সুলতানা জানায়, দীর্ঘদিন থেকে তার সাথে আরিফুল ইসলামের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আরিফুল তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাটাজোরে আসতে বলে। সেখানে আসার পর আরিফুল ওইদিন সন্ধ্যায় তাকে একটি নির্জনস্থানে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তার অমতে আরিফ তাকে বিভিন্ন ধরনের যৌণ হয়রানি শুরু করে। এসময় তার ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আরিফকে আটক করে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Translate »