আর্কাইভ

আগৈলঝাড়ায় সংখ্যালঘুদের জমি দখল করে মাছ চাষ ঘটনাস্থলে সত্যতা পেয়েছেন প্রশাসন

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ বরিশালের আগৈলঝাড়ায় প্রভাবশালী কর্তৃক ভেরী বাঁধের স্লুইজ গেট বন্ধ করে সংখ্যালঘুদের জমি দখল করে অবৈধভাবে মাছ চাষ করছে। আজ মঙ্গলবার এ নিয়ে গৌরনদী ডটকম সহ বিভিন্ন দৈনিকে সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তারা প্রকাশিত সংবাদের সত্যতা পেয়েছেন।

জানা গেছে, পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের সূত্র ধরে আজ মঙ্গলবার আগৈলঝাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপংকর বিশ্বাস, কৃষি কর্মকর্তা রমেন্দ্র নাথ বাড়ৈ ও থানার অফিসার ইনাচর্জ ওসি অশোক কুমার নন্দি বাকাল ইউনিয়নের বরাবাড়ি গ্রামের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। প্রশাসনের পরিদর্শনকালে অভিযুক্ত প্রভাবশালী মোশারফ বকতিয়ার এলাকা ছেড়ে আত্মগোপন করে। প্রশাসন সরেজমিনে ভেরী বাধের স্লুইজ গেট বন্ধ করে মাছ চাষের সত্যতা পেয়েছেন। এসময় মোশারফ বকতিয়ারের বাবা আব্দুল মালেক ও ভাই জামাল বকতিয়ার উপস্থিত ছিলেন। কর্মকর্তারা স্থানীয় জনগনসহ ইউপি সদস্য অজিত শিকারীর সাথে কথা বলেন। এসময় অনুপস্থিত থাকায় প্রভাবশালী মোশারফ বকতিয়ারকে আগামীকাল বুধবার সকাল দশটার মধ্যে স্ব-শরীরে ইউএনও কার্যালয়ে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

উল্লেখ, উপজেলার বাকাল ইউনিয়নের বড়মগড়ার বরাবাড়ি নামকস্থানে আব্দুল মালেক বকতিয়ারের প্রভাবশালী পুত্র মোশারফ বকতিয়ার প্রভাব খাটিয়ে গত ২ বছর যাবৎ ওই গ্রামের সংখ্যালঘু পরিবারের জমিতে ওয়াপদা ভেরী বাঁধের স্লুইজগেট বন্ধ করে জোর পূর্বক মাছ চাষ করে আসছে। ফলে ভুক্তভোগী চাষিরা তাদের একমাত্র জমিতে ফসল উৎপাদন থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

আগৈলঝাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীঙ্ককর বিশ্বাস বলেন, গৌরনদী ডটকমে প্রকাশিত সংবাদ দেখে সরেজমিনে গিয়ে রির্পোটের সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

আরও পড়ুন

মন্তব্য করুন

Back to top button
Translate »